×

এই জনপদ

সুনামগঞ্জের হাওরে পানির অভাবে মাছের সংকট

Icon

প্রকাশ: ২৫ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মো. সাজ্জাদ হোসেন শাহ্, সুনামগঞ্জ থেকে : চলতি বছর সুনামগঞ্জের হাওরে বোরোর বাম্পার ফলন হলেও পানির অভাবে দেখা দিয়েছে দেশীয় প্রজাতির মাছের সংকট। পানি উন্নয়ন বোর্ড ও হাওরপাড়ের বাসিন্দারা জানিয়েছেন, সময় মতো পানি না আসায় হাওর এলাকায় দেখা দিয়েছে দেশীয় প্রজাতির মাছের সংকট। ফলে বাধ্য হয়েই মাছের চাহিদা মেটাতে হচ্ছে পুকুরে চাষকৃত, রুই, কাতল, সিলভারকার্প, তেলাপিয়া ও পাঙাশ মাছ দিয়েই। হাওরে পানি না আসায় দেশীয় মাছের সংকটের কারণে পুকুরে চাষ করা এসব প্রজাতির মাছ কিনতে হচ্ছে চড়াদামে।

মে মাসের শুরুতে নদীর পানি বাড়লেও তীব্র তাবদাহের কারণে হাওর এখনো শুকনো রয়েছে। এতে হাওরের মাছসহ জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে পড়েছে। স্থানীয়রা বলছেন, যত দ্রুত পানি আসবে হাওরবাসীর জন্য তা ততোটাই মঙ্গল।

এ জেলার ১২ উপজেলার কৃষরা হাওরের শতভাগ ফসল কাটা শেষ করে মে মাসের প্রথম সপ্তাহে ধান গোলায় তোলার কাজ শেষ হয়েছে। যে হাওরে এবার ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে সেই হাওরেই এখন পানির জন্য অপেক্ষা। চলতি মাসের শুরুতে হালকা পাহাড়ি ঢল ও ভারতের উজানে বৃষ্টির পানিতে হাওরে পানি প্রবেশ করার কথা। সে অনুযায়ী প্রস্তুতিও নেয়া হয়েছিল। তবে সামান্য বৃষ্টিপাতে নদীর পানি কিছুটা বাড়লেও হাওরে পানি বাড়ার মতো বৃষ্টি হয়নি। তারপরেও কিছু কিছু হাওরে পানি প্রবেশ করানোর জন্য সøুইস গেট খুলে দেয়া হয়েছে।

তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট বাজারের বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম বলেন, এ সময় সুনামগঞ্জের হাওরে পানি থইথই করার কথা। কিন্তু সময় মতো হাওরে পানি না আসায় হাওর এলাকায় দেখা দিয়েছে দেশীয় প্রজাতির মাছের সংকট। ফলে বাধ্য হয়েই আমাদেরকে চড়াদাম দিয়ে মাছের চাহিদা মেটাতে হচ্ছে পুকুরে চাষকৃত, রুই, কাতল, সিলভারকার্প, তেলাপিয়া ও পাঙাশ মাছ দিয়েই।

দুর্গম হাওরাঞ্চল খ্যাত শাল্লা উপজেলার বাসিন্দা গণমাধ্যমকর্মী জয়ন্ত সেন বলেন, এ সময় সুনামগঞ্জের হারাঞ্চলে পানি থইথই করার কথা। এ বছর হাওরে বোরোর বাম্পার ফলন হলেও এখন পর্যন্ত হাওরে পানি না আসায় হাওর এলাকায় দেখা দিয়েছে দেশীয় প্রজাতির মাছের সংকট। শুধু তাই হাওরে এখন পানি না আসায় হাওরের মাছসহ জীববৈচিত্র্য পড়েছে হুমকির মুখে।

ধর্মপাশা উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের প্রবীণ মুরব্বী আব্দুল লতিব বলেন, আরও ১৫ দিন আগে হাওরের শতভাগ ধান কাটা শেষ হয়েছে। এখন পানি আসার সময় হয়ে গেছে। কিন্তু এখনো হাওরে পানি না আসায় দেখা দিয়েছে দেশীয় প্রজাতির মাছের সংকট। হাওরে যত দ্রুত পানি আসবে হাওরবাসীর জন্য তা ততোটাই ভালো।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সুনামগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মামুন হাওলাদার বলেন, চলতি মাসের শুরুতে হালকা বৃষ্টিপাত হওয়ায় হাওরের সøুইস গেটগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। এখন আবার নদীর পানি কমে গেছে। তিনি আরও বলেন, হাওরে যতো দ্রুত পানি আসবে ততো মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App