×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

এই জনপদ

নওয়াপাড়ায় মায়ের লাঠির আঘাতে মেয়ে নিহত

Icon

প্রকাশ: ২৩ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

নওয়াপাড়া (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের অভয়নগর উপজেলায় তুচ্ছ ঘটনায় মায়ের লাঠির আঘাতে এক তরুণী নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার মাগুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তরুণীর নাম মুন্নী খাতুন (১৯)। তিনি উপজেলার মাগুরা গ্রামের জসিম উদ্দিন মোল্যার মেয়ে।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ মুন্নী খাতুনের মা মরিয়ম বেগমকে থানায় নিয়েছে।

স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি ও থানা পুলিশ জানায়, মেয়ে মুন্নী খাতুনের বিয়ের পর তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এরপর থেকে তিনি উপজেলার মাগুরা গ্রামে তার বাবার বাড়িতেই থাকতেন। গতকাল বুধবার সকালে মা মরিয়ম বেগমের সঙ্গে মুন্নী খাতুনের ঝগড়া হয়। এই ঝগড়ার একপর্যায়ে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মরিয়ম বেগম ধান ঝাড়াইয়ের সময় হাতে থাকা খড় পরিষ্কার করার বাঁশের লাঠি দিয়ে মেয়ে মুন্নীকে আঘাত করতে উদ্যত হন। এ সময় অসাবধানতাবশত মুন্নীর নাকের মাঝখানে লাঠির আঘাত লাগে। এতে মুন্নী আহত হলে স্থানীয় একজন গ্রাম্য চিকিৎসককে ডেকে এনে তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়। এরপরও মুন্নী খাতুন মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়লে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার পথে তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে অভয়নগর থানার ওসি এসএম আকিকুল ইসলাম বলেন, মা ও মেয়ের ঝগড়ার জের ধরে মায়ের লাঠির আঘাতে মেয়ে মুন্নী খাতুন মারা গেছেন। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মুন্নী খাতুনের মা মরিয়ম বেগমকে থানায় আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

অন্যদিকে নারকেল গাছ থেকে পড়ে আব্দুল সরদার (৭০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার জিয়াডাঙ্গা গ্রামে নিজের নারকেল গাছ থেকে পড়ে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের ছেলে জাহিদুল ইসলাম জানান, গতকাল বুধবার সকালে তার বাবা বাড়ির পাশের নিজেদের নারকেল গাছে নারকেল পাড়তে ওঠেন। কাঁদি থেকে নারকেলের বোঁটা কাটতে তার কাছে একটি কাঁচি ছিল। সকাল ৮টার দিকে কাঁদি থেকে নারকেলের বোঁটা কাটার সময় তিনি নারকেল গাছ থেকে নিচে পড়ে যান। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান।

অভয়নগর থানার ওসি এস এম আকিকুল ইসলাম বলেন, নারকেল পাড়তে গাছে উঠে সেখান থেকে পড়ে আব্দুল সরদার মারা গেছেন। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App