×

এই জনপদ

কুমারখালীত ভগ্নিপতির হাতে শ্যালক খুন

Icon

প্রকাশ: ১৯ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি : কুমারখালীতে পাওনা টাকা ও ধানকাটার জেরে ইউনুস আলী (৬০) নামে এক কৃষককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে বোনজামাই ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে। গতকাল শনিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার শিলাইদহ ইউনিয়নের খোর্দ্দবন গ্রামে মাঠে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় আরো বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। ইউনুস আলী খোর্দ্দবন গ্রামের মৃত আকবর আলীর ছেলে। এছাড়া আহতরা হলেন- রাসেল হোসেন, হোচেন আলী, রকিবুল ইসলাম, চাঁদ আলী ও অরুন আলী (৪২)। এর মধ্যে রাসেল হোসেন ও হোচেন আলী ইউনুস আলীর ছেলে। আহতরা কুমারখালী ও কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অভিযুক্ত ভগ্নিপতির নাম মো. মোক্তার হোসেন (৫৫)। তিনি একই ইউনিয়নের মাঝগ্রাম গ্রামের মৃত হাচেন আলীর ছেলে।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইউনুস আলীর ছেলের সঙ্গে মুক্তার শেখের মেয়ের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। মুক্তার ইউনুসের ভগ্নিপতি। তারা একই গ্রামের বাসিন্দা। বিয়ের কিছুদিন যাওয়ার পর থেকেই দুই পরিবারের মধ্যে দ্ব›দ্ব শুরু হয়। এরপর বেশ কয়েকদিন ধরে মুক্তার ও তার লোকজন ইউনুসকে জমির ধান কাটতে বাধা ও হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল। এ ঘটনায় কয়েকদিন আগে কুমারখালী থানায় লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ইউনুস। শনিবার সকালে ইউনুস আলী বেশ কয়েকজন শ্রমিককে নিয়ে বিরোধপূর্ণ জমিতে ধান কাটতে যায়। এ সময় পূর্ব পরিকল্পিতভাবে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মুক্তার, মুক্তারের দুই ছেলে, উজির, বাদশা, রহন, এহের, জহুরুল, ফরিদসহ প্রায় ৩০ জন ইউনুসকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ইউনুস আলীকে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কুমারখালী থানার ওসি মো. আকিবুল ইসলাম জানান, ধানকাটা ও পূর্বশত্রæতার জেরে প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে একজন খুন হয়েছে। এছাড়া কয়েকজন আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। উভয়পক্ষ পরস্পর আত্মীয়।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এ ঘটনায় আইনি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন। অপরাধীদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে বলে ও জানান তিনি।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App