×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

এই জনপদ

গাংনী

শেষ মুহূর্তে সরে দাঁড়ালেন তিন প্রার্থী

Icon

প্রকাশ: ১৮ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মেহেরপুর প্রতিনিধি : ২১ মে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। প্রথম দিকে ১০ জন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন সংগ্রহ করলেও প্রত্যাহারের শেষ দিন ২ জন প্রত্যাহার করে নেন। ২ মে প্রতীক বরাদ্দ দেয়ার পর থেকে ৮ জন প্রার্থীই চালাতে থাকেন ব্যাপক প্রচার প্রচারণা। ৮ জনের মধ্যে ৭ জনই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। জুলফিকার আলী ভুট্টো নামের বাকি একজন ছিলেন জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক। নির্বাচনে অংশ নেয়ায় তাকে বিএনপি থেকে বহিষ্কার করা হয় বলে নিশ্চিত করে মেহেরপুর জেলা বিএনপি। যে যার মতো নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর পর শেষ মুহূর্তে গত চার দিনে সংবাদ সম্মেলন করে আওয়ামী লীগের তিনজন প্রার্থী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান। এখন পর্যন্ত নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন যারা তারা হলেন- জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শফিকুল আলম (কাপ-পিরিচ), উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন (মোটরসাইকেল), উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক লাইলা আরজুমান বানু (দোয়াত কলম)। গত রবিবার লাইলা আরজুমান বানু, সোমবার মোশাররফ হোসেন এবং মঙ্গলবার শফিকুল আলম সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। একে একে এভাবে নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার কারণ প্রার্থীরা ব্যাখ্যা করলেও সাধারণ ভোটারদের মাঝে তৈরি হয়েছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শফিকুল আলম বলেন, আমি নির্বাচনে প্রচারণা শুরু হওয়ার পর লক্ষ করলাম প্রচার-প্রচারণার ক্ষেত্রে প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থীদের সঙ্গে আমাকে যতটুকু লড়াই করতে হয়েছে তারচেয়ে বেশি লড়াই করতে হয়েছে একটি সিন্ডিকেটের সঙ্গে। এটা খুব কঠিন। আমার অভিজ্ঞতায় এটা ছিল না যে আগে সিন্ডিকেটের সঙ্গে লড়াই করে তারপর আমাকে প্রার্থীদের সঙ্গে লড়াই করতে হবে। আমি অনুভব করলাম দুটো লড়াই একসঙ্গে চালিয়ে যাওয়া যাবে না। এজন্যই আমি ভোটের লড়াই থেকে সরে যাচ্ছি। অন্য দুই প্রার্থী পারিবারিক ও দলের স্বার্থে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা বললেও তাদের সমর্থকরা বলছেন ভিন্ন কথা।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App