×

এই জনপদ

কলাপাড়া

পাউবোর জমি দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ

Icon

প্রকাশ: ১৩ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

পাউবোর জমি দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ
কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : কলাপাড়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) জায়গা অবৈধভাবে দখল করে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পৌর শহরের নতুন বাসস্ট্যান্ডসংলগ্ন ঢাকা-কুয়াকাটা মহাসড়কের দুপাশে এসব অবৈধ স্থাপনা গড়ে উঠেছে। স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় এমনটি হচ্ছে বলে ধারণা অনেকের। তবে জনবল সংকটসহ বিভিন্ন জটিলতার কারণে এগুলো উচ্ছেদ ও উদ্ধার করতে সময় লাগছে বলে কলাপাড়া পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ জানায়। গতকাল রবিবার সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, পৌর শহরের নতুন বাসস্ট্যান্ডসংলগ্ন ঢাকা-কুয়াকাটা মহাসড়কের দুপাশে একাধিক স্থায়ী ও অস্থায়ী স্থাপনা গড়ে উঠেছে। এর মধ্যে আবাসিক হোটেলসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এদের অনেকেরই দালিলিক কোনো কাগজপত্র নেই। এর মধ্যে পজিশন বেচা-কেনার ঘটনাও রয়েছে। অনেক বছর ধরে এভাবেই পানি উন্নয়ন বোর্ডের জমি অবৈধভাবে দখল করে রেখেছেন তারা। ক্ষেত্রবিশেষে উচ্ছেদ অভিযান হলেও স্থানীয় প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় ও অবৈধ অর্থ লেনদেনের কারণে উচ্ছেদ অভিযান বন্ধ হয়ে যায়। জানা যায়, ১৯৬৭ সালে ১৬১/১৯৬৭-৬৮ নং এলএ কেসের মাধ্যমে ৪৩/১বি পোল্ডারে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নামে মহাসড়কের জন্য ভূমি অধিগ্রহণ করা হয়। পরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নামে ৭ নম্বর খতিয়ানে বিএস রেকর্ডভুক্ত হয়। কিন্তু অলৌকিকভাবে তা এখনো অবৈধ দখলেই রয়েছে। স্থানীয় হোটেল ব্যবসায়ী কেরামত খাঁন বলেন, ওই জমির এসএ রেকর্ড তাদের নামে রয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নামে বিএস রেকর্ড হওয়ায় আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। ব্যবসায়ী ইব্রাহীম তালুকদার জানান, পজিশন কিনে তা ভোগদখল করছেন। অনেকেই স্থায়ী নির্মাণ ভবন করায় তিনিও নির্মাণ করেছেন। তবে সরকার চাইলে জায়গা ছেড়ে দেবেন। এ বিষয়ে কলাপাড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রাকিব হোসেন বলেন, আমাদের জনবল সংকট রয়েছে। এর পরেও এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মহোদয়কে অবহিত করা হয়েছে। খুব শিগগির ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগসহ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে বলেও জানান তিনি।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App