×

এই জনপদ

ভেড়ামারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বাড়ছে রোগীর চাপ

Icon

প্রকাশ: ১১ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

ভেড়ামারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বাড়ছে রোগীর চাপ
ইসমাইল হোসেন বাবু, ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া) থেকে : কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় নানা ধরনের অসুখ নিয়ে রোগীরা হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। হিটস্ট্রোকসহ জ¦র, সর্দি, ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ার রোগীরই চাপ হাসাপাতালে। হাসাপাতালে সব বয়সের রোগীর দেখা মিললেও শিশু রোগীর সংখ্যা উল্লেখযোগ্য। গত বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের শিশু বহিঃবিভাগ থেকে চিকিৎসা নিয়েছে ৪০ শিশু। চলতি বছরে সর্বোচ্চ রেকর্ড। অন্যদিকে ওয়ার্ডে ভর্তি আছে ২৩ জন রোগী। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ঘুরে দেখা যায়, শিশু বহিঃবিভাগের সামনে রোগীদের দীর্ঘ লাইন। প্রতিদিন এ বিভাগ থেকে অর্ধশতাধিক রোগী সেবা নেয় বলে জানান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ও নার্সরা। তীব্র গরমে রোগীর সংখ্যা বাড়ছে বলেও জানান সংশ্লিষ্টরা। একই অবস্থা শিশু ওয়ার্ডেও। প্রতিদিনই রোগীর চাপ বাড়ছে। ফারাকপুর গ্রামের চার বছর বয়সি শিশু শুভর হাতে ক্যানোলা লাগানো। তাকে স্যালাইন দেয়া হচ্ছে। মা জরিনা বেগম জানান, বেশ কয়েকদিন আগে ছেলের জ¦র হয়। একপর্যায়ে তার খিঁচুনি শুরু হয়। ভয় পেয়ে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে চিকিৎসকরা তাকে ভর্তির পরামর্শ দেন। শহরের খাঁপাড়া থেকে আসা অনন্যা রহমান তার মেয়েকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করেছেন। তিনি জানান, গত পাঁচ দিন ধরে তার দুই মাসের শিশুর পাতলা পায়খানা ও জ¦র। পরে হাসপাতালে এসে জানতে পারেন, শিশুটির নিউমোনিয়া হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সোনিয়া ঘোষ বলেন, তাপপ্রবাহে শিশুদের অসুখ বেড়ে যায়। এ ব্যাপারে অভিভাবকদের সচেতন থাকতে হবে। শিশুদের অপ্রয়োজনে বাসার বাইরে যাওয়া বন্ধ রাখতে হবে। স্কুলে যাওয়া-আসার পথে রোদ থেকে বাঁচতে ছাতা ব্যবহার করতে হবে। রাস্তার পাশের হোটেল থেকে খাবার ও পানীয় পরিহার করতে হবে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আর এম ও) ডা. জুবায়ের রহমান বলেন, অতিরিক্ত তাপপ্রবাহে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়ে গেছে। প্রতিদিনই হাসপাতালে ডায়রিয়া রোগী আসছে। ভর্তি রোগী ছাড়াও অনেকেই আউটডোরে চিকিৎসা নিচ্ছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বলেন, অতি গরমে হাসপাতালে শিশুসহ অন্যান্য রোগী বাড়ছে। আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে মানুষ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়। পানি ও তরল জাতীয় খাবার খাওয়ার পরার্মশ দেন এই চিকিৎসক।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App