×

এই জনপদ

যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতাল

স্টোর থেকে ওষুধ চুরির অভিযোগ

Icon

প্রকাশ: ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

যশোর প্রতিনিধি : যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতাল থেকে বিভিন্ন সময় স্টোরকিপার সাইফুল ইসলাম ওষুধ চুরি করে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত মাসে হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে যশোর-৩ (সদর) আসনের এমপি কাজী নাবিল আহমেদ হাসপাতালের স্টোরকিপার সাইফুল ইসলামকে অন্যত্র বদলির জন্য সুপারিশ করেন। এরপর তাকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতাল থেকে বদলি করা হয় মণিরাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। ঈদের আগে ৯ এপ্রিল ছুটির আগের দিন বিকালে তিনি স্টোর থেকে ইজিবাইকে করে ওষুধ নিয়ে যান। এ রকম একটি সিসিটিভির ভিডিও রয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে বেলা ৪টার পর অফিসের কার্যদিবস শেষ হলে সাইফুল ইসলাম একটি ইজিবাইক নিয়ে তার দপ্তরের সামনে রেখে সেখানে ওষুধ তুলছেন। পরে সেই ওষুধ নিয়ে যাচ্ছে যশোর ঘোপ নওয়াপাড়া রোড়ের দিকে। এ ব্যাপারে সাইফুল ইসলামের বক্তব্য নিতে গেলে তিনি বক্তব্য দিতে অস্বীকার করে বলেন, আমার স্যারের সঙ্গে কথা বলেন। এ ব্যাপারে আমি কোনো বক্তব্য দেব না। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. হারুন অর রশিদ বলেন, স্টোর কিপার সাইফুল তাকে (তত্ত্বাবধায়ক) বলেছেন, কিছু ওষুধ পরিবর্তন করার জন্য তিনি স্টোর থেকে বাইরে নিয়ে গিয়েছেন। তবে ওষুধ যদি সে পাচার করে, আর যদি তা প্রমাণিত হয়, তবে স্টোরকিপারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিরি আরো বলেন, সংসদ সদস্যের সুপারিশের ভিত্তিতে তাকে বদলি করা হয়েছে। সাইফুল ইসলামের কাছ থেকে ওষুধ বুঝে নেয়ার কাজ চলছে। সে যদি কোনো ওষুধ বাইরে নিয়ে যায়, তার প্রমাণ পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সাইফুল ইসলামের বদলির কারণে এখন হাসপাতালের স্টোরের ওষুধ বুঝে নিচ্ছেন ফার্মাসিস্ট রতন কুমার সরকার। তিনি বলেন, আমি এখনো সব ওষুধ বুঝে পাইনি। কিছু ওষুধের গড়মিল পাচ্ছি। হিসাব সম্পূর্ণ হওয়ার পর বলতে পারব কত ওষুধ হাসপাতাল থেকে সরানো হয়েছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App