×

সম্পাদকীয় ও মুক্তচিন্তা

লোকসভা নির্বাচন

অভিনন্দন নরেন্দ্র মোদি

Icon

প্রকাশ: ০৬ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

 অভিনন্দন নরেন্দ্র মোদি

আবারো দিল্লির মসনদে বসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। টানা তৃতীয়বার ভারতের ক্ষমতায় আসছে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ)। সূত্রের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে, ৮ জুন শপথ নিতে পারেন নরেন্দ্র মোদি। জয় নিশ্চিত হওয়ার পর দেশকে ঐক্যবদ্ধ করার অঙ্গীকার করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নরেন্দ্র মোদি বলেন, এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় জয়। এই জয় ভারতীয়দের জয়। দলের নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, তিনি ‘মানুষের আকাক্সক্ষা পূরণ করতে গত এক দশক ধরে ভালো কাজ’ করেছেন এবং ভবিষ্যতেও সেই কাজ অব্যাহত রাখবেন। সর্বশেষ খবরে জানা গেছে, ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ৫৪৩টি আসনের সবগুলোর চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করা হয়েছে। ভারতের নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ফল অনুযায়ী, ২৪০ আসনে জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। ৯৯টি আসনে জয় পেয়েছে প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস। অন্য দলগুলোর মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেস ২৯টি আসনে জয় পেয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দুর তথ্যমতে, ঘোষিত ফল অনুযায়ী বিজেপি নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ) জোটের মোট আসন সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৮৬টি। অপরদিকে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইন্ডিয়া জোটের মোট আসনসংখ্যা হয়েছে ২০২টি। এর আগে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি এককভাবে ৩০৩ আসনে জয় পেয়েছিল। সেবার বিজেপির নেতৃত্বাধীন জোট এনডিএ ৩৫২ আসনে জয় পায়। এবার বিজেপি সবচেয়ে বেশি আসন পেলেও সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় আসন পায়নি। সে ক্ষেত্রে এনডিএ জোট শরিকদের ওপর নির্ভর করতে হবে বিজেপিকে। নির্বাচনী প্রচারণায় মোদির সেøাগান ছিল- ‘আব কি বার, ৪০০ পার’। কিন্তু এবার সেই আশার গুড়েবালি। ভোট গণনা শুরু হওয়ার পরই পাল্টে যেতে শুরু করে সব সমীকরণ। এমন পরিস্থিতিতে বিজেপিকে গঠন করতে হবে জোট সরকার। জোট সরকার চালানোর কোনো অভিজ্ঞতা মোদির নেই। এবারই প্রথম তাকে জোট সরকার গঠন করতে হচ্ছে। জোটের ছোট ছোট দলগুলোর ওপর নির্ভরশীলতাও বাড়বে বিজেপির। এসব দল এখন আরো বেশি দরকষাকষি করার সুযোগ পাবে বিজেপির সঙ্গে। অন্যদিকে বিরোধী দলগুলোর আসন বেশি হওয়ায় পার্লামেন্টে এখনকার তুলনায় অনেক বেশি বিরোধের মুখেও পড়তে হবে বিজেপিকে। ভারতীয় জনগণের রায়ের প্রতি সম্মান দেখিয়ে আমরা নির্বাচনে বিজয়ী বিজেপিসহ এনডিএ জোটকে অভিনন্দন জানাই। বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতান্ত্রিক দেশ ভারত। প্রায় ৯০ কোটি ভোটারের এই নির্বাচন ছিল এক বিশাল মহাযজ্ঞ। দেশটি কে বা কারা শাসন করবে, প্রতি পাঁচ বছর অন্তর তা নির্ধারিত হয়। বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্রের দেশটির নাগরিকরা সরাসরি ভোট দিয়ে তাদের শাসক বা প্রতিনিধি বেছে নেন। সেই গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয় ১৮তম লোকসভা নির্বাচন। টানা দেড় মাসব্যাপী ভোটগ্রহণের পর গত মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা শুরু হয়। ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্ব দেশের জন্মলগ্ন থেকে। দেশটির সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক নানা বিষয়ের ওপর নির্ভরশীল। দুই দেশের এই বন্ধুত্বের জেরে অনেক গুরুত্বপূর্ণ অমীমাংসিত সমস্যার সুষ্ঠু সমাধান এসেছে। এখনো কিছু বিষয় রয়েছে। তিস্তার পানি চুক্তি, সীমান্তে হত্যাকাণ্ড বন্ধ, রোহিঙ্গা ইস্যু, বাণিজ্য ঘাটতি কমিয়ে আনাসহ বেশ কিছু বিষয় অমীমাংসিত রয়েছে। এগুলো সমাধানে উদ্যোগী হতে হবে। এগুলো মীমাংসায় দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। এ ক্ষেত্রে আমাদের কূটনৈতিক তৎপরতা আরো জোরদার করতে হবে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App