×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

অর্থ শিল্প বাণিজ্য

যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ছে বেকার ভাতার আবেদন

Icon

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের শ্রমবাজারের চাঙাভাব কমতে শুরু করেছে। গত সপ্তাহে দেশটিতে প্রথমবারের মতো বেকার ভাতার আবেদন করা মানুষের সংখ্যা বেড়েছে। সেই সঙ্গে বেকার ভাতা পাওয়া মানুষের সংখ্যা আড়াই বছরের মধ্যে এখন সর্বোচ্চ। জুন মাসের এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, দেশটির সেবা খাতের কর্মসংস্থান গত সাত মাসের মধ্যে এ নিয়ে ছয় মাস কমেছে। দেশটির ইনস্টিটিউট অব সার্ভিস এমপ্লয়মেন্ট বা আইএসএম সেবা খাতের যে পিএমআই সূচক প্রণয়ন করে তাতে দেখা গেছে, জুন মাসে এই সূচকের মান চার বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন। যদিও সূচক অতটা বিশ্বাসযোগ্য নয় বলে সংবাদে বলা হয়েছে। রয়টার্সের সংবাদে বলা হয়েছে, গত জুন মাসজুড়ে প্রতি সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে বেকার ভাতার আবেদন করা মানুষের সংখ্যা বেড়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়েছিল, মে মাসের শেষ দিকে মেমোরিয়াল ডের ছুটির কারণে সমন্বয়জনিত সমস্যা ও কিছু রাজ্যে বেকার ভাতাজনিত বিধি পরিবর্তনের কারণে এমনটা হয়েছে।

কিন্তু এখন অর্থনীতিবিদরা মনে করছেন, বিষয়টি স্রেফ বিধিবিধান পরিবর্তনের কারণে নয়। তারা এখন বিশ্বাস করেন, শ্রমবাজারের চাঙাভাব কমে আসছে। সেই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে মূল্যস্ফীতির হার কমছে। বিশ্লেষকদের ধারণা, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসেই ফেডারেল রিজার্ভ নীতি সুদহার কমাতে পারে। গবেষণাপ্রতিষ্ঠান অক্সফোর্ড ইকোনমিকসের যুক্তরাষ্ট্রবিষয়ক প্রধান অর্থনীতিবিদ ন্যান্সি ভেনডেন হুটেন রয়টার্সকে বলেন, বেকার ভাতার জন্য আবেদন করা মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণ হলো, চাকরি পাওয়া কঠিন হয়ে গেছে। কর্ম খালির বিজ্ঞাপন কমে গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের শ্রম মন্ত্রণালয়ের তথ্য মতে- গত ২৯ জুন শেষ হওয়া সপ্তাহে রাজ্যপর্যায়ে বেকার ভাতার আবেদন করা মানুষের সংখ্যা ৪ হাজার বেড়েছে। গত চার সপ্তাহে গড়ে ২ হাজার ২৫০ জন মানুষ এই আবেদন করেন। অর্থনীতিবিদরাও বলছেন, ৪ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রে স্বাধীনতা দিবসের ছুটি, এ সময় অনেক কারখানা বন্ধ থাকে। সে কারণেও বেকার ভাতার আবেদন বেড়েছে।

এ পরিস্থিতি ৪ জুলাইয়ের পরও অব্যাহত থাকতে পারে। এ সময় গাড়ি কোম্পানিগুলো কারখানায় নতুন যন্ত্রপাতি সংযোজন করতে কিছুদিন কারখানা বন্ধ রাখে।

সামগ্রিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির হার কমে আসছে। আরেক প্রতিবেদনে জানা গেছে, জুন মাসে দেশটির বেসরকারি খাতে কর্মসংস্থান বেড়েছে ১ লাখ ৫০ হাজার; মে মাসে এই সংখ্যাটা ছিল ১ লাখ ৫৭ হাজার। যদিও অর্থনীতিবিদদের নিয়ে করা রয়টার্সের এক জরিপের পূর্বাভাস ছিল, জুন মাসে দেশটির বেসরকারি খাতে কর্মসংস্থান বাড়বে ১ লাখ ৬০ হাজার।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App