×

অর্থ শিল্প বাণিজ্য

পুঁজিবাজার চিত্র

ঊর্ধ্বমুখী ধারায় ফেরার ইঙ্গিত

Icon

প্রকাশ: ০৩ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

 ঊর্ধ্বমুখী ধারায় ফেরার ইঙ্গিত
কাগজ প্রতিবেদক : ক্যাপিটাল গেইনের ওপর ট্যাক্স আরোপ না হওয়ার খবরে ইতিবাচক প্রবণতায় ফিরেছে দেশের পুঁজিবাজার। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস গতকাল বৃহস্পতিবার পুঁজিবাজারে বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার পাশাপাশি বেড়েছে সবকটি মূল্যসূচক। এর মাধ্যমে চলতি সপ্তাহে লেনদেন হওয়া চার কার্যদিবসের মধ্যে তিন কার্যদিবসেই সূচক বেড়েছে। দীর্ঘদিন ধারাবাহিক মন্দার বৃত্তে ছিল পুঁজিবাজার। গত রবিবার বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম পুনর্নিয়োগ পান। এ খবরে বাজারে চাঙ্গাভাব আসে। পরে গত সোমবার থেকে ক্যাপিটাল গেইনের ওপর ট্যাক্স আরোপের গুঞ্জন শুরু হয়। মন্দার বৃত্তে থাকা পুঁজিবাজার ইতিবাচক প্রবণতায় ফিরতে শুরু করতেই আবারো নেতিবাচক প্রবণতায় টার্ন নেয়। গত মঙ্গলবার বিকালে বিএসইসির চেয়ারম্যান ক্যাপিটাল গেইনের ওপর ট্যাক্স আরোপ না হওয়ার ব্যাপারটি পরিষ্কার করলে গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে বাজার ইতিবাচক প্রবণতায় অগ্রসর হয়। যা শেষ পর্যন্ত অব্যাহত থাকে। গতকাল প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়লেও ৯টি প্রতিষ্ঠান বড় দাপট দেখিয়েছে। লেনদেনের বেশির ভাগ সময় এ ৯ প্রতিষ্ঠানের বিক্রয় আদেশের ঘর শূন্য পড়ে থাকে। অন্যদিকে দিনের সর্বোচ্চ দামে এ প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ার বিপুল পরিমাণে ক্রয়ের আদেশ আসে। এ নয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে-সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজের, অ্যাপেক্স টেনারি, ফর কেমিক্যাল, জিপিএসই ইস্পাত, অ্যাকটিভ ফাইন, ফারইস্ট নিটিং, গোল্ডেন জুবেলি মিউচুয়াল ফান্ড, অলটেক্স এবং সোনালী আঁশ। গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩০ দশমিক ৯৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫ হাজার ৬১৫ পয়েন্টে। অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরীয়াহ সূচক ৪ দশমিক ৯২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১ হাজার ২৩২ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১২ দশমিক ৫৫ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ২ হাজার ০৭ পয়েন্টে। তবে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে। গতকাল ৭১০ কোটি ৬২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে, আগের কর্মদিবসে ছিল ৮৩৫ কোটি ৭২ লাখ টাকা, যা গত ৩৫ কর্মদিবসের মধ্যে সর্বোচ্চ। ডিএসইতে ৩৯৫টি প্রতিষ্ঠানের ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২০৭টির, কমেছে ১৪০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টির। গতকাল লেনদেনে সব থেকে বেশি অবদান রেখেছে এশিয়াটিক ল্যাবরেটরিজের শেয়ার। কোম্পানিটির ৩৫ কোটি ৯২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা মালেক স্পিনিংয়ের ৩১ কোটি ২৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২৬ কোটি ১৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে লাভেলো আইসক্রিম। এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ দশ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে-আইটি কনসালটেন্ট, ওরিয়ন ইনফিউশন, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, ওরিয়ন ফার্মা, ওয়াইম্যাক্স ইলেকট্রোড, শাহিনপুকুর সিরামিক এবং বেস্ট হোল্ডিং। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার পাশাপাশি সবকটি মূল্যসূচক বেড়েছে অন্যদিকে সিএসইতে ১৬ কোটি ১৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৯২ কোটি ৭৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট। যা ছিল গত এক বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। সিএসইতে ২২২টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৫টির, কমেছে ৮৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৩টি প্রতিষ্ঠানের। এদিকে শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার ব্যাপারে বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ক্যাপিটাল গেইনের ওপর ট্যাক্স না হওয়ার খবরে বাজার ছোট ও বড় বিনিয়োগকারীদের যে শঙ্কা ছিল, তা কাটতে শুরু করেছে। ব্যক্তিশ্রেণির সব বিনিয়োগকারীরা ধীরে ধীরে বাজারে ফিরছে। যে কারণে সূচক ও লেনদেনে ছিল ধারাবাহিকভাবে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা। আর কোনো গুজব না ছড়ালে সামনের সপ্তাহের বাজারে ভালো একটা অবস্থা দেখা যেতে পারে বলে জানান তারা।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App