×

অর্থ শিল্প বাণিজ্য

শেয়ারবাজারে ধারাবাহিক পতন

Icon

প্রকাশ: ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : ঈদের পর ধারাবাহিক পতনে চলছে দেশের পুঁজিবাজার। গতকাল বুধবার দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের বড় পতনে লেনদেন হয়েছে। এতে ডিএসইর প্রধান সূচক কমেছে ৫৪ পয়েন্ট। তবে উভয় শেয়ারবাজারেই বেড়েছে লেনদেন। তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, যতই দিন যাচ্ছে দেশের শেয়ারবাজারের চেহারা আরো খারাপ হচ্ছে। কোনো কিছুতে শেয়ারবাজারের লাগামহীন পতন রোধ করা যাচ্ছে না। এর ফলে বিনিয়োগকারীদের আর্তনাদ আরো ভারি হচ্ছে। খাদের কিনারে থাকা শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীরা এখন পাগলপ্রায়। বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশের শেয়ারবাজার এখন লাইফ সাপোর্টে। সাধারণ বিনিয়োগকারীরা আক্ষেপ করে বলছেন, এখন আল্লাহ তা’য়ালাই একমাত্র ভরসা। তিনি না চাইলে লাইফ সাপোর্ট থেকে শেয়ারবাজারকে ফেরানো যাবে না। গত মঙ্গলবার পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের মানববন্ধনে বিনিয়োগকারীরা শেয়ারবাজারে পতন ঠেকাতে কতিপয় কর্মসূচি ঘোষণা করে। যার মধ্যে ছিল মার্চেন্ট ব্যাংককে শেয়ারবাজারে অংশগ্রহণ থেকে প্রত্যাহার করা, স্বল্প মূলধনি কোম্পানির আইপি অনুমোদন বন্ধ করা, শেয়ারবাজারের কোম্পানিগুলোর ন্যূনতম ১০ শতাংশ ডিভিডেন্ড নিশ্চিত করা, জেড ক্যাটাগরি ও এসএমই মার্কেট বলতে কিছু না রাখা, ২০১০ সালের ইব্রাহীম খালেদের রিপোর্ট অনুযায়ী কারসাজিকারীদের শাস্তির ব্যবস্থা করা, জিএমজি এয়ারলাইন্সে প্লেসমেন্ট অর্থ ফিরিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করা ইত্যাদি। তারা অভিযোগ করছেন, বিনিয়োগকারীদের এসব দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ওইসব বড় বিনিয়োগকারীরা আরো ক্ষেপেছে; যার কারণে গতকাল বুধবার শেয়ারবাজারে আরো বড় পতন হয়েছে। গতকাল বুধবারের বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সপ্তাহের চতুর্থ কর্মদিবসে ডিএসইয়ের প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫৪ দশমিক ৬৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫ হাজার ৫৭৮ পয়েন্টে। অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৬ দশমিক ১৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ২২৯ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৪ দশমিক ২৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৯৮৪ পয়েন্টে। গতকাল ডিএসইতে ৬০২ কোটি ৭৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের কর্মদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৫৭৯ কোটি ৫৬ লাখ টাকার। অন্য শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২৬ কোটি ৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১৫ কোটি ৬৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট। গতকাল সিএসইতে ২২৭টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৪১টির, কমেছে ১৬৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২০টি প্রতিষ্ঠানের। আগের দিন সিএসইতে ২১৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যার মধ্যে দর বেড়েছিল ৪৩টির, কমেছিল ১৪৫টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৭টি প্রতিষ্ঠানের।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App