×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

দূরের জানালা

মোদির সবচেয়ে ধনী মন্ত্রী

Icon

প্রকাশ: ১৩ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মোদির সবচেয়ে ধনী মন্ত্রী

কাগজ ডেস্ক : টানা তৃতীয়বারের মতো ভারতে সরকার গঠন করেছে নরেন্দ্র মোদির বিজেপি। মন্ত্রিত্বও ভাগাভাগি করতে হয়েছে। গত রবিবার সন্ধ্যায় মোদিসহ ৭২ জন সাংসদ রাষ্ট্রপতি ভবনে মন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন। মন্ত্রিসভার বিশাল বহরে ৩০ জন পূর্ণমন্ত্রী, বাকিরা কেউ প্রতিমন্ত্রী, কেউ আবার স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন। তাদের মধ্যে এক জনকে নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে। তিনি নতুন মন্ত্রিসভার সবচেয়ে ধনী সদস্য। নাম চন্দ্রশেখর পেম্মাসানি। অন্ধ্রপ্রদেশের গুন্টু লোকসভা কেন্দ্র থেকে এবার তেলুগু দেশম পার্টির (টিডিপি) টিকেটে লড়েছিলেন তিনি। প্রায় সাড়ে তিন লাখ ভোটে হারিয়েছেন জগন্মোহন রেড্ডির দল ওয়াইএসআরসিপি-র প্রার্থী কিলারি ভেঙ্কটা রোয়াইয়াকে। গুন্টুরের বাসিন্দা চন্দ্রশেখর। সেখানকার বুরিপালেম গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন তিনি। ৪৮ বছর বয়সি এই রাজনীতিবিদ পেশায় চিকিৎসক। ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিবিএস পাশ করেন চন্দ্রশেখর। তার পর বিদেশে পাড়ি দেন তিনি। জন্স হপকিন্স ইউনিভার্সিটি এবং লিনাইল হাসপাতালে পাঁচ বছর প্র্যাকটিস করেছেন তিনি। এছাড়াও ডাক্তারি পড়ুয়াদের পড়াতেন তিনি। পাশাপাশি অনলাইন লার্নিং প্ল্যাটফর্মও তৈরি করেছিলেন চন্দ্রশেখর। নাম ‘ইউ ওয়ার্ল্ড’। বর্তমানে সেই সংস্থার সিইও তিনি। চন্দ্রশেখরের সম্পত্তির পরিমাণ পাঁচ হাজার ৭০০ কোটি ভারতীয় রুপি। ভোটাধিকার সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন অফ ডেমোক্রেটিক রিফর্মস বা এডিআর-এর দেয়া তথ্য অনুযায়ী, চন্দ্রশেখরই দেশের ধনীতম মন্ত্রী।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App