×

সারাদেশ

যানজটে স্থবির ফটিকছড়ির ঝংকার মোড়

প্রশ্নবিদ্ধ হাইওয়ে পুলিশের ভূমিকা

Icon

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

প্রশ্নবিদ্ধ হাইওয়ে পুলিশের ভূমিকা

মুহাম্মদ দৌলত, ফটিকছড়ি (চট্টগ্রাম) থেকে : চট্টগ্রাম জেলার ফটিকছড়ি উপজেলার প্রবেশদ্বার হিসেবে পরিচিত নাজিরহাট ঝংকার মোড়ের যানজট যেন নিত্যদিনের সঙ্গী। চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ এ পয়েন্টে দিনের বেশির ভাগ সময়ই যানজট লেগে থাকে। অথচ এ মোড় দিয়ে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার মানুষ ও বিভিন্ন ধরনের যানবাহন যাতায়াত করে থাকে।

জানা গেছে, চট্টগ্রামের মাইজভাণ্ডার দরবার শরিফের ভক্ত-আশেকান ও স্থানীয়দের চলাচলের একমাত্র পথ এই নাজিরহাট ঝংকার মোড়ের। জনবহুল এ স্থানের যানজট নিরসনে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একাধিকবার প্রচেষ্টা চালানো হয়েছে। এরপরও কোনো সুফল মিলছে না। ফলে প্রতিনিয়ত ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের যানবাহনের চালক ও পথচারীদের। এ অবস্থায় নাজিরহাট হাইওয়ে থানা পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্থানীয় অনেকে।

জানা গেছে, নাজিরহাট পৌর সদরের পূর্ব দিক দিয়ে বয়ে যাওয়া চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়ককে কেন্দ্র করে ঝংকার সিনেমা হল সংলগ্ন চৌরাস্তাটি ঝংকার মোড় নামে পরিচিত। গতকাল মঙ্গলবার সকালে ওই স্থানে সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, জনবহুল স্থানটির সবকটি সড়কে অন্তত এক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজট লেগে আছে। এ সময় একাধিক বাস চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কের ওপর ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে যাত্রী ওঠানামা করতে দেখা গেছে। এছাড়া সড়কগুলোর উভয় পাশে পার্কিং করে দাঁড়িয়ে আছে শতাধিক সিএনজি অটোরিকশা। গাড়িগুলো এমনভাবে রাখা হয়েছে, পাশ দিয়ে আরেকটি যানবাহন যাওয়ার তেমন সুযোগ নেই। এর মধ্যে যানজটে আটকা পড়ে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় অসংখ্য ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা। এ সময় এক ব্যক্তিকে নিজ উদ্যোগে যানজট নিয়ন্ত্রণ করে পথটি সচল করতে ব্যস্ত থাকতে দেখা গেছে। তবে চোখে পড়েনি হাইওয়ে পুলিশের কোনো তৎপরতা, যদিও যানজট নিরসন হাইওয়ে পুলিশেরই কাজ। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়ক ব্যবহারকারী বেশ কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে কথা হয় এ প্রতিবেদকের। তারা বলেন, এ মোড়ের যানজট নিরসন করতে হলে প্রথমে মহাসড়কের ওপর বাস থামিয়ে যাত্রী ওঠানামা বন্ধ করতে হবে। তা না হলে সব উদ্যোগ বিফলে যাবে। এছাড়া মহাসড়কের মধ্যবর্তী স্থানে গোল চত্বর স্থাপন করে সিগন্যালিং সিস্টেম চালুর ওপর গুরুত্ব দেন এই সচেতন ব্যক্তিরা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাজিরহাট হাইওয়ে থানার ইনচার্জ মো. মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া অবহেলার অভিযোগটি সত্য নয় বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, ঝংকার মোড়ের যানজট দীর্ঘ দিনের। এ স্থানকে যানজটমুক্ত রাখতে হাইওয়ে পুলিশ প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে বলেও দাবি করেন এই কর্মকর্তা।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী ভোরের কাগজকে বলেন, ঝংকার এলাকার যানজট নিরসনে অতীতে বহুবার প্রচেষ্টা চালানো হয়েছে। অভিযান চালানোর পর কয়েকদিন ঠিক থাকলেও পরে আগের অবস্থায় ফিরে আসে। তিনি আরো বলেন, এ স্থানে হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি ট্রাফিক পুলিশকে দায়িত্ব দেয়ার চিন্তা করছি।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App