×

সারাদেশ

বিটুমিন পোড়ানোর গন্ধ ও ধোঁয়ায় পরিবেশ দূষণ, অতিষ্ঠ জনজীবন

Icon

প্রকাশ: ৩০ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

বিটুমিন পোড়ানোর গন্ধ ও ধোঁয়ায় পরিবেশ দূষণ, অতিষ্ঠ জনজীবন

কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি : কুমারখালী পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের দুর্গাপুর-তারাপুর সড়কের বাটিকামারা (কালিমন্দির সংলগ্ন) এলাকার একটি পরিত্যক্ত জমিতে চলছে বিটুমিন গলানোসহ খোয়া মিকচারের কাজ। ঝুট ও প্লাস্টিক জাতীয় দ্রব্য পুড়িয়ে বিটুমিন গলানোসহ প্লান্টমেশিনে খোয়া মিকচারের কাজ চলছে গত কয়েকদিন ধরে। এদিকে বিটুমিন ও প্লাস্টিক পোড়ানোর গন্ধ, কালো ধোঁয়া ও ধুলায় এলাকার বাতাস দূষিত হচ্ছে। এতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে ওই এলাকার স্বাভাবিক জনজীবন। মানুষের স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে। এছাড়া মাথাব্যথা, হাঁচি, কাশিসহ নানা রোগের উপসর্গ দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে দুর্গাপুর পূর্বপাড়া এলাকার বাসিন্দা ও জাতীয় কবিতা পরিষদের সাবেক কোষাধক্ষ্য প্রবীণ কবি সৈয়দ আব্দুস সাদিক জানান, গত কয়েকদিন ধরে তাদের এলাকায় বিটুমিন গলানোর জন্য ঝুট ও প্লাস্টিক জাতীয় দ্রব্য পোড়ানোর কারণে প্রকট দুর্গন্ধ, কালো ধোঁয়া ও ধুলায় পুরো এলাকার বাতাস দূষিত হয়ে গেছে। নিশ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে এই এলাকার মানুষের। অনতিবিলম্বে পৌরসভার আবাসিক এলাকা থেকে এই কার্যক্রম বন্ধের দাবি জানান তিনি। আরেক নারী বাসিন্দা জানান, কয়েকদিন ধরে তারা কালো ধোঁয়া, ধুলা ও গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন। প্রচণ্ড মাথাব্যথা, বমিভাবসহ হাঁচি-কাশি হচ্ছে, স্বাভাবিকভাবে নিশ্বাস নিতে পারছেন না তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক বাসিন্দা বলেন, প্লাস্টিক পোড়ানোর গন্ধ, কালো ধোঁয়া ও ধুলায় এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হলেও প্রতিকারের উপায় খুঁজে পাচ্ছি না। স্থানীয় কারো জানা নেই এই কাজের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কিংবা ঠিকাদার কে। কর্মরত শ্রমিকদের জিজ্ঞেস করলে তারা জানান, কুমারখালী পৌরসভার মেয়র সামছুজ্জামান অরুণ কাজ করাচ্ছেন। আর তাই নীরবে সহ্য করতে হচ্ছে এই দুর্ভোগ।

সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, সড়ক কার্পেটিংয়ের কাজ চলছে উপজেলার সদকী ইউনিয়নের মহিষাখোলা এলাকায়, আর বিটুমিন পোড়ানো হচ্ছে পৌরসভার এলাকায়। কালো ধোঁয়া, বিটুমিন ও প্লাস্টিক পোড়ানোর গন্ধসহ ধুলা ছড়িয়ে পড়েছে বাটিকামারা ও দুর্গাপুর পূর্বপাড়ার আবাসিক এলাকায়। দুর্গাপুর-তারাপুর সড়কের পাশে এই কাজ করায় পথচারীদেরও দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুর রহিম জানান, মহিষাখোলা এলাকায় সড়কের কার্পেটিং কাজ চলছে। কাজটি অন্য ঠিকাদারের হলেও এখন সম্পন্ন করছেন কুমারখালী পৌরসভার মেয়র সামছুজ্জামান অরুণ।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App