×

সারাদেশ

শান্তিগঞ্জ

ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলের হামলায় যুবক নিহত

Icon

প্রকাশ: ২৩ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

শান্তিগঞ্জ (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : উপজেলার দরগাপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের ছেলের অতর্কিত হামলা ও ছুরিকাঘাতে নোমান মাহমুদ ওরফে রুমান মিয়া (৩৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। নোমান ইউনিয়নের সিচনী গ্রামের হুসমত আলীর ছেলে। এ সময় ওই ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য আজিজুর রহমানের ছেলে জামিল আহমদ পায়েলও গুরুতর আহত হয়েছেন। গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পাগলা-জগন্নাথপুর সড়কের সিচনী পয়েন্টের ব্রিজের পূর্ব পাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

সিচনী গ্রামের বাসিন্দা বাবুল মিয়া জানান, আমি ব্রিজের উপরে বসে ছিলাম। নোমান আক্তাপাড়া বাজার থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এসে ঘটনাস্থলে গাড়ি থেকে নামে। সেখানে গাছের সঙ্গে তার নৌকা বাঁধা ছিল। বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশ্যে নৌকার বাঁধন খোলার সময় দরগাপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুফি মিয়ার ছেলে ফাহিম আহমদ (২৮) ও নাঈম আহমদ (২৪) তাদের ১০ থেকে ১২ জন বন্ধু নিয়ে নোমানের উপর অতর্কিত হামলা করে এলোপাথাড়ি ছুরিকাঘাত করতে থাকে। তখন পায়েল মেম্বারসহ আমরা সবাই দৌঁড়ে এগিয়ে গেলে তারা পায়েল মেম্বারকে ছুরি মেরে নৌকায় পালিয়ে যায়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সন্ধ্যা ৭টায় সিচনী পয়েন্টে জমিসংক্রান্ত বিরোধ, আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রæতার জের ধরে ইউপি চেয়ারম্যান সুফি মিয়ার দুই ছেলে ফাহিম আহমদ ও নাঈম আহমদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় নিহত রোমান ও আহত জামিল আহমদ পায়েলের (প্রাক্তন মেম্বার)। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ফাহিম ও নাঈম মিলে নোমান ও পায়েলকে এলোপাথাড়ি ছুরিকাঘাত শুরু করেন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় দুজনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে নোমানকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

শান্তিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজি মোক্তাদির হোসেন একজন নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত করে বলেন, নোমান মিয়া নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে আমিসহ আমার ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। ঘটনাস্থলে আমাদের অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন আছে। আমাদের নজরদারি অব্যাহত। আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App