×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

সারাদেশ

প্রধান শিক্ষকসহ অন্য শিক্ষকরা গরহাজির

বিদ্যালয়ের মাঠ যেন ধান-ভুট্টার চাতাল

Icon

প্রকাশ: ১০ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

বিদ্যালয়ের মাঠ যেন ধান-ভুট্টার চাতাল

মো. হারুন উর রশীদ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) থেকে : বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালে বিদ্যালয়ের মাঠে ধান ও ভুট্টা শুকানো, গরু, ছাগলের চারণভূমিতে পরিণত করা হয়েছে। দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার শমসের নগর আদর্শ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠ এই করুণ দশায় পড়েছে। বিদ্যালয়ের বেশির ভাগ শিক্ষকের উপস্থিতি কম। ফলে পড়ালেখা ঠিকমতো হয় না।

এলাকার অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে অভিযোগ করেও সুফল পাননি।

উপজেলার ৭ নম্বর শিবনগর ইউনিয়নের শমসেরনগর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ঘুরে দেখা যায়, শিক্ষার্থীরা স্কুলের সীমানার বাইরে ঘুরাফিরা করছে। বিদ্যালয় মাঠে তাদের বিচরণের কোনো জায়গা নেই। কারণ চাতালের মতো করে স্কুলের মাঠজুড়ে ধান ও ভুট্টা শুকানো হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক বলেন, বিদ্যালয়ের মাঠকে চাতাল হিসেবে ব্যবহার করছেন স্কুলের সভাপতির ভাতিজা মনোয়ার হোসেন।

ক্লাস রুমগুলোতে গেলে দেখা যায় ঠিকমতো ক্লাস হচ্ছে না। শিক্ষার্থীরা বলেন, স্যাররা ঠিকমতো ক্লাস নেন না। স্যারদের ডেকে এনে ক্লাস করাতে হয়। শিক্ষকদের কমনরুমে গেলে তাদের উপস্থিতি কম পাওয়া যায়।

প্রধান শিক্ষকের অফিশিয়াল কোনো কাজ না থাকলেও সারাক্ষণ ব্যক্তিগত কাজে ব্যস্ত থাকেন। স্কুলে নিয়মিত আসেন না। তিনি স্কুলে এসে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করেই চলে যান। তার স্কুলে না থাকার বিষয়ে তৎক্ষণাৎ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. নুর আলমকে ফোনে জানানো হলে তিনি বলেন, এই মুহূর্তে তার স্কুলে থাকার কথা। কেন নেই আমি বিষয়টা দেখছি।

অভিযোগের বিষয়ে প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে কথা বলার জন্য মোবাইলে যোগাযোগ করে দুই দিন বিদ্যালয়ে গেলেও তাকে পাওয়া যায়নি। বিদ্যালয়ে থেকে মোবাইলে তার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করলেও তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া য়ায়।

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. নুর আলমের সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন, প্রধান শিক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষকদের স্কুলে অনুপস্থিতি এবং বিদ্যালয়ের মাঠকে চাতাল বানিয়ে ধান ও ভুট্টা শুকানোর বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। প্রমাণ মিললে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App