×

সারাদেশ

ছাত্রবিনিময় চুক্তি

জাপানে গবেষণা করতে গেলেন রুয়েট শিক্ষার্থী

Icon

প্রকাশ: ০৮ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : রাজশাহী ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি (রুয়েট) বিশ্ববিদ্যালয় ও জাপানের সাইতামা ইউনিভার্সিটির ছাত্র বিনিময় চুক্তির আওতায় জাপান গেলেন নেওয়াজ আরেফিন রাফিদ। তিনি ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া গ্রামের আকবর আলীর ছেলে।

রুয়েট এবং জাপানের সাইতামা ইউনিভার্সিটি ২০১৮ সালে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করে। এর আওতায় রুয়েট থেকে প্রথমবারের মতো ২ জন শিক্ষার্থী জাপানের সাইতামা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাচ্ছেন। তার একজন হলেন নেওয়াজ আরেফিন রাফিদ। চুক্তি সফল করার জন্য রুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইঞ্জি. মো. জাহাঙ্গির আলাম এবং অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। বর্তমানে সাইতামা ইউনিভার্সিটি গ্রীষ্মকালীন প্রোগ্রাম ২০২৪ এ অংশ নিতে জাপানে গেছেন নেওয়াজ আরেফিন রাফিদ। এই সময়ে তিনি সাইতামা ইউনিভার্সিটির ফ্লুইড মেশিনারি ল্যাবে প্রফেসর কাং ডংহিউকের অধীনে গবেষণার কাজ করবেন। এ প্রোগ্রামে বিশ্বের ১০টি দেশ থেকে মোট ১৫ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে, যার মধ্যে বাংলাদেশের রুয়েট থেকে ২ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন। রুয়েটের নিজস্ব ওয়েবসাইডে বলা হয়েছে, আমরা বিশ্বাস করি তাদের অভিজ্ঞতা শুধুমাত্র শিক্ষাগতভাবেই তাদের উপকৃত করবে না বরং আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাব সুবিধার উন্নয়নেও অবদান রাখবে। রাফিদ ও মোহাম্মদ মোস্তাফিদুর রহমান দুইজনকে শুভেচ্ছা জানাই। নেওয়াজ আরেফিন রাফিদের স্কুল জীবন শুরু হয় বাঁকড়া মুন এডাস ইনস্টিটিউট থেকে। খুলনা সেন্ট জোসেফস হাই স্কুল থেকে এসএসসি এবং সরকারি মজিদ মেমোরিয়াল সিটি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে যন্ত্রকৌশল বিভাগে ভর্তি হন তিনি। ২০২৪ সালের মার্চে যন্ত্রকৌশল বিভাগ থেকে প্রথম শ্রেণি পেয়ে পাস করেন।

তার এ সাফল্যের পেছনে পিতা-মাতাসহ নানা নুরুজ্জামান এবং নানি আঞ্জুমানারা জামানের অবদান আছে বলে রাফিদ জানান।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App