×

সারাদেশ

বরংগাইল গোপাল চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়

ম্যানেজিং কমিটির স্থগিত নির্বাচন হবে কবে?

Icon

প্রকাশ: ৩০ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

সুরেশ চন্দ্র রায়, মানিকগঞ্জ থেকে : শিবালয় উপজেলার বরংগাইল গোপাল চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচনের নির্ধারিত তারিখ ছিল ১৫ মে। কিন্তু নতুন পরিপত্র উপেক্ষা করে তফসিল ঘোষণা করায় বাছাই কমিটি তাদের ভুল সিদ্ধান্ত ধামাচাপা দিতে ১৩ মে নির্বাচন স্থগিত করেছেন বলে অভিযোগ অভিভাবকদের। এদিকে নির্বাচন স্থগিতের পনের দিন পেরিয়ে গেলেও পুনরায় নির্বাচন কিংবা এডহক কমিটি গঠনের বিষয়ে কর্তৃপক্ষ কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ না করায় প্রার্থী, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে কবে হবে স্থগিত নির্বাচন।

অভিভাবক সদস্য প্রার্থীরা জানান, ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য ২৮ থেকে ৩০ এপ্রিলের মধ্যে প্রধান শিক্ষকের কাছে ৮জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। নির্ধারিত তারিখে যাচাই-বাছাই কমিটি আবেদনকৃত প্রত্যেক প্রার্থীকেই বৈধ ঘোষণা করেন এবং তাদের নামের আদ্যাক্ষর অনুসারে প্রতীক বরাদ্দও দেয়া হয়।

১২ মে প্রধান শিক্ষক সব প্রার্থীকে তার কক্ষে ডেকে নির্বাচনী আচরণবিধি সম্পর্কে অবহিত করে প্রচারণা চালাতে নির্দেশনা প্রদান করেন। এ সময় দুইজন প্রার্থী একাধিকবার ম্যানেজিং কমিটির সদস্য পদে বহাল থাকায় তারা নতুন প্রজ্ঞাপনের আওতায় পড়বেন কি না জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক জানান কোনো সমস্যা নেই। সব বিধি মেনেই তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. লুৎফর রহমান মোবাইল ফোনে জানান, তিনি এখন বাইরে আছেন, তাই তফসিল ঘোষণার সঠিক তারিখ এই মুহূর্তে বলতে পারবেন না। তবে অবশ্যই ২২ থেকে ২৪ এপ্রিলের মধ্যে তফসিল ঘোষণা করা হয়েছিল এতে কোনো সন্দেহ নেই। একাধিকবার নির্বাচিত দুইজন প্রার্থীকে বাছাই প্রক্রিয়ায় বৈধ ঘোষণা করে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা প্রথমদিকে নির্বাচন চালিয়ে যেতে নির্দেশনা দিয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে তার আদেশেই নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। পুনরায় কবে নাগাদ নির্বাচন হতে পারে প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, এই মুহূর্তে সুনির্দিষ্টভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে আশা করা যাচ্ছে, আগামী আট দশ দিনের মধ্যে বোর্ডের একটি নির্দেশনা তিনি হাতে পাবেন। সেক্ষেত্রে এডহক কমিটি হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

গত ১০ মে শিবালয় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল খায়ের মোবাইল ফোনে জানান, ঘোষিত তফসিল অনুসারেই নির্বাচন হবে। নতুন প্রজ্ঞাপনের বিষয়ে কারো কোনো কথা থাকলে সেটি মনোনয়নপত্র বাছায়ের দিন উল্লেখ করা উচিত ছিল। ঘোষিত তফসিল অনুসারেই নির্বাচন চলবে। তবে, সভাপতি নির্বাচনের সময় নতুন প্রজ্ঞাপন অনুসরণ করা হবে। গত সোমবার পুনরায় যখন নির্বাচন নিয়ে মোবাইল ফোনে ওই কর্মকর্তার সঙ্গে কথা হয় তখন তিনি বলেন, নির্বাচন তো স্থগিত করে দিয়েছি। যা হওয়ার তো হয়েই গেছে, এ নিয়ে এত প্রশ্ন করার কী আছে? পরে তিনি আর কথা না বলে মোবাইল ফোন কেটে দেন।

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আমির হোসেন বলেন, ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন এখন থেকে অবশ্যই নতুন প্রজ্ঞাপন মেনে হতে হবে। বিষয়টি প্রধান শিক্ষক, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও শিবালয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। আগের নিয়মে নির্বাচন হলে তিনি এর দায়ভার নেবেন না।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App