×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

সারাদেশ

অর্থ দিয়েও মেলেনি মাতৃত্বকালীন ভাতা কার্ড

সিংগাইরে ইউপি সচিব ও মেম্বারের বিরুদ্ধে অভিযোগ

Icon

প্রকাশ: ২৩ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মাসুম বাদশাহ, সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) থেকে : অর্থ দিয়ে এক বছরেও মেলেনি গর্ভবতী মায়ের মাতৃত্বকালীন ভাতার কার্ড। এরপরেও আরো অতিরিক্ত অর্থ দাবির অভিযোগ পাওয়া গেছে ইউপি সচিব ও মেম্বারের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তরা হলেন- সিংগাইর উপজেলার বলধারা ইউনিয়ন পরিষদ সচিব সেলিম মোল্লা ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য (মেম্বার) আজাদ। গত মঙ্গলবার ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে ওই ইউনিয়নের আটকুড়িয়া গ্রামের সুজন টিকাদার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর এ অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগে প্রকাশ, এক বছর আগে আটকুড়িয়া গ্রামের অন্তঃসত্ত্বা ঝুমা সরকার (২২) মাতৃত্বকালীন ভাতার জন্য আবেদন করেন। এ ঘটনায় তার দেবর সুজন টিকাদারকে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে আজাদ মেম্বার ৩ হাজার টাকা ও পরবর্তীতে ইউপি সচিব সেলিম মোল্লা ২ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন। সর্বশেষ গত মঙ্গলবার (২০ মে) ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে ইউপি সচিব সেলিম মোল্লার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে কার্ড পেতে আরো ৭-৮ মাস সময় লাগবে বলে জানান তিনি। অভিযোগকারী সুজন টিকাদার বলেন, সচিব সেলিম মোল্লা ও আজাদ মেম্বার আমার গর্ভবতী ভাবির কার্ড প্রদান না করে ৫ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছেন। এ সময় জড়িতদের বিচার দাবি করেন তিনি। ইউপি সচিব সেলিম মোল্লা বলেন, গত ডিসেম্বর মাসে যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে তার মাতৃত্বকালীন কার্ড চূড়ান্ত হয়েছে। কার্ড দেয়ার নামে কোনো টাকা নেয়া হয়নি। আজাদ মেম্বার বলেন, গর্ভবতীর কার্ডের বিষয়ে আমি কিছুই জানি না।

এ ব্যাপারে সিংগাইর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পলাশ কুমার বসু বলেন, অভিযোগের কপি আমার কাছে এখনো আসেনি। গর্ভকালীন ভাতার কার্ড দেয়ার নামে টাকা নেয়ার বিষয়টি প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App