×

সারাদেশ

ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়াই আ.লীগ-বিএনপি নেত্রীর

Icon

প্রকাশ: ১৬ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়াই আ.লীগ-বিএনপি নেত্রীর
সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : আগামী ২৯ মে তৃতীয় ধাপে সাটুরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। তবে মূল লড়াই হবে উপজেলা মহিলা দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুন্নি আক্তার এবং আওয়ামী লীগ নেত্রী ও বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিউলি আক্তারে সঙ্গে। জানা যায়, বিএনপি সাবেক নেত্রী মুন্নি আক্তার প্রজাপতি প্রতীক এবং বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিউলি আক্তার হাঁস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী মাঠ কাপাচ্ছেন। এছাড়া অন্য দুজন হচ্ছেন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেফালি আক্তার, হাঁস প্রতীক এবং সাটুরিয়া ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতানা বেগম কলস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন। বিএনপি নেত্রী মুন্নি আক্তার মানিকগঞ্জ জেলা কৃষক দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাটুরিয়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এবং বালিয়াটি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সদ্য প্রয়াত আব্দুস সোবহানের কন্যা। তিনি উপজেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। বিএনপির কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অম্যান্য করে নির্বাচন করায় গত সোমবার (১৪ মে) তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এদিকে চেয়ারম্যান ও পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীদের সঙ্গে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীদের গণসংযোগ জমে উঠেছে। উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের বিভিন্ন হাট-বাজার, রাস্তা-ঘাটে এবং গুরুত্বপূর্ণ স্থানে নির্বাচনী পোস্টার, ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে। প্রার্থী নিজে, তাদের স্বজন ও সমর্থকদের টিম সরাসরি ভোট প্রচারণা ছাড়াও চলছে ডিজিটাল মাইকিং। এসব মাইকে বাহারি গান ও প্রতিশ্রæতি সংবলিত প্রচারণা চালাচ্ছেন। অন্যদিকে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও চালাচ্ছেন প্রচারণা। বিএনপি নেত্রী মুন্নি আক্তার বলেন, আমার বাবা মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মানুষের সেবায় কাজ করে গেছেন। বিএনপি রাজনীতি করলেও তৃণমূলে সর্বজনীন জনপ্রিয় ছিলেন। সব মানুষের কাছে সীমাহীন জনপ্রিয়তা। বাবার আদর্শকে লালন করেই আমি নির্বাচনের আগে সাধারণ মানুষের নিকট গিয়ে তুমুল সারা পেয়েছি। ফলে আমি নির্বাচন চালিয়ে যাচ্ছি। আমি আশা করছি আমি ভোটারদের অকুণ্ঠ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হব এবং সাটুরিয়া শিশু ও নারীদের জন্য ব্যতিক্রমী কাজ করে যাব। বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিউলি আক্তার বলেন, আমি বিগত সময়ে চেয়ারম্যান ছিলাম। আমি এবারো জয়ী হব ইনশাআল্লাহ। সাটুরিয়া উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেফালি আক্তার বলেন, আমি বালিয়াটি ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্য নির্বাচিত ছিলাম। আমার জনপ্রিয়তা থাকতেই আমি সাটুরিয়ার বৃহত্তর মানুষকে সেবা দিতে আমি প্রার্থী হয়েছি। আমি জয়ী হয়ে সাটুরিয়ার সেবা করতে পারব বলে আমি আশা রাখি। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ৯টি ইউনিয়ন নিয়ে সাটুরিয়া উপজেলা গঠিত। এ উপজেলায় মোট ভোটার ১ লাখ ৫২ হাজার ৩৪৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছেন, ৭৬ হাজার ২২৫ জন এবং মহিলা ভোটার রয়েছেন, ৭৬ হাজার ৭২ জন। উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৭ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী রয়েছেন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App