×

সারাদেশ

পরিবারের দাবি হত্যা

মেলান্দহে প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার

Icon

প্রকাশ: ১৬ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মেলান্দহ (জামালপুর) প্রতিনিধি : মেলান্দহে লায়লা বেগম (৩৮) নামে এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে নিহতের পরিবারের অভিযোগ গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সকাল ৯টার দিকে নিহতের শ্বশুরবাড়ি উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের চর খাবুলিয়া থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় নিহতের ভাই ইয়াকুব আলী থানায় হত্যা মামলা দায়ের চাইলে পুলিশ হত্যা মামলা নেইনি বলে অভিযোগ করেন। তবে অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে বলে জানান পুলিশ। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, প্রায় বিশ বছর আগে লায়লা বেগমের সঙ্গে রকিবুল ইসলামের পারিবারিকভাবে বিবাহ হয়। তাদের সংসারে দুই ছেলে ও একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। গত মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে লায়লা বেগমের দুই বছরের ছোট মেয়ে দীর্ঘ সময় কান্না করতে থাকে। কান্নার শব্দ শুনে তার শ্বশুর রফিকুল ইসলাম অনেক ডাকাডাকি করেও কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে তার ঘরে ঢুকে লায়লা বেগমকে গলায় ওড়না পেঁচানো ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। পরে স্থানীয়রা ঝুলন্ত মরদেহ মাটিতে নামায়। নিহতের বড় ভাই ইয়াকুব আলী বলেন,আমার বোনকে হত্যা করেছে তার শ্বশুর-শাশুড়িসহ পরিবারের লোকজন। আমরা সকালে খবর পেয়ে গিয়ে দেখি ঘরের বারান্দায় লাশ পড়ে রয়েছে। আমরা সকাল থেকেই সারাদিন থানায় ছিলাম। হত্যা মামলা করার জন্য অনেকবার বলছি কিন্তু থানায় হত্যা মামলা নেয়নি। মেলান্দহ থানার ওসি তদন্ত কবির হোসেন বলেন, খরব পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর প্রকৃত রহস্য উদ্ঘাটন হবে। মেলান্দহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজু আহাম্মদ বলেন, এই ঘটনায় থানায় অপমৃত্যুর মামলা দায়ের হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন আসার পর পরবর্তীতে আইনগত অবস্থা নেয়া হবে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App