×

সারাদেশ

দেবে গিয়ে ঢেউয়ের মতো অবস্থা

ঝিনাইদহ-যশোর মহাসড়কে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

Icon

প্রকাশ: ০৮ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

ঝিনাইদহ-যশোর মহাসড়কে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহ-যশোর মহাসড়কের বেশ কিছু স্থান দেবে গিয়ে ঢেউয়ের মতো অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এতে যানবাহনের ক্ষতির পাশাপাশি ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। এসব দেখার যেন কেউ নেই। তবে সড়ক বিভাগ বলছে, তীব্র তাপদাহের কারণে সড়কের পিচ গলে যাওয়া এবং ওভার লোড নিয়ে গাড়ি চলাচলের কারণে এমনটি হয়েছে। সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, ঝিনাইদহ থেকে কালীগঞ্জ যাওয়ার পথে তেঁতুলতলা বাজার, বিষয়খালী বাজার, সালাভরা, খয়েরতলা বাকুলিয়াসহ যশোর সীমানা পর্যন্ত বেশ কয়েকটি জায়গায় ৮০০-১২০০ মিটার রাস্তা ঢেউয়ের মতো অবস্থায় রয়েছে। ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে এই রাস্তা দিয়ে। রাস্তার এমন অবস্থায় চলাচলের পথে বিকল হচ্ছে যানবাহন। গত দুই সপ্তাহ ধরে এই সড়কটি এতটাই বেহাল যে প্রতিদিনই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। সড়কটি দেখলে বোঝার উপায় নেই এটি গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় মহাসড়ক। বেঁকে যাওয়া জায়গাগুলো ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে মেরামত করা হচ্ছে। মহাসড়কটি এমনভাবে মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করা হলেও বর্ষা মৌসুমে খানাখন্দে পরিণত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সড়কটি এখন পথচারী এবং যানবাহনের জন্য গলার কাঁটা। জানা যায়, দুই মাস হলো ঝিনাইদহ-যশোর সড়ক উইকেয়ার সেকশন (ফেজ-১) ছয় লেন প্রকল্পের অধীনে সড়কটি হস্তান্তর করা হয়েছে। ফলে ঝিনাইদহ সড়ক বিভাগের অধীনে নেই এই মহাসড়ক। মহসড়কের সব সমস্যা প্রকল্পের মাধ্যমে সমাধান করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে সড়কের ৮০০ মিটার জায়গায় সমস্যা চিহ্নিত করে সেগুলো মেরামতের কাজ শুরু করেছে। বিশয়খালী এলাকার মো. বশির আহমেদ ভোরের কাগজের প্রতিবেদককে বলেন, সড়কের বেহাল দশা। মাঝে মাঝে মোটরসাইকেল, ইজিবিইক দুর্ঘটনার শিকার হয়। কোনো প্রাণহানির ঘটনা না ঘটলেও সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হয়ে অনেকে পঙ্গুত্ব বরণ করছেন। এখন সড়কটি যেভাবে মেরামত করা হচ্ছে, এটা বেশি দিন টেকসই হবে না। সড়কটি সঠিকভাবে মেরামত করার দাবি জানাই। সড়কে টেম্পুচালক অশিক কুমার জানান, এই রাস্তায় চলাচল করতে খুবই সমস্যা হচ্ছে। যাত্রী নিয়ে সব সময় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হয়। খুব দ্রুত মেরামত করা প্রয়োজন। গাড়িচালক মো. শহিদুল ইসলাম জানান, ১৫-২০ দিন? হলো সড়কটি বেশি খারাপ হয়ে গেছে। যাত্রীরা ঠিকমতো গাড়িতে বসতে পারে না। গতকাল গাড়ির হাফচেম্বার ভেঙে গিয়ে ইঞ্জিন সিস করেছিল। খুবই সমস্যার মধ্যে আছেন। প্রাইভেট কার চালক মহাসিন জানান, সড়কে যে সমস্যা চোখে দেখেই বোঝা যাচ্ছে, এটা নিয়ে বলার কিছুই নেই। সড়কের এই অবস্থার কারণে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে। রাস্তাটি যেভাবে মেরামত করা হচ্ছে এতে করে দুদিন পর আরো সমস্যা হবে। এ বিষয়ে ঝিনাইদহ-যশোর সড়ক উইকেয়ার সেকশন (ফেজ-১) ছয় লেন প্রকল্পের ব্যবস্থাপক মো. নিলন আলী বলেন, তীব্র তাপদাহের কারণে বিটুমিন গেলে গেছে। এর পাশাপাশি সড়কে চলাচলকারী গাড়িগুলো ওভার লোডিংয়ের কারণে সড়কে এমন ঢেউ খেলানো অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। সড়কটি মেরামত করে চলাচলের জন্য উপযোগী করে তোলা হচ্ছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App