×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

খেলা

ফাইনালের ‘সেই’ বিতর্কিত ক্যাচ নিয়ে মুখ খুললেন প্রোটিয়া অধিনায়ক

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ৩০ জুন ২০২৪, ১১:৫৭ পিএম

ফাইনালের ‘সেই’ বিতর্কিত ক্যাচ নিয়ে মুখ খুললেন প্রোটিয়া অধিনায়ক

ছবি: সংগৃহীত

সদ্য শেষ হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনালটি ছিলো বেশ উত্তেজনার। ভারতের বিপক্ষে শেষ ওভারে ৬ বলে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রয়োজন ছিল ১৬ রান। প্রথমবার ফাইনালে ওঠা প্রোটিয়ারা তখন বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্নে বিভোর।

কিন্তু হার্দিক পান্ডিয়ার ওই ওভারেই প্রথম বলেই  সেই চুরমার হয়ে যায়। লং অফে ডেভিড মিলারের প্রায় সীমানা পার করা শটের সঙ্গে মিতালী পাকীয়ে বল তালু বন্দী করে নেন সূর্যকুমার যাদব। কিন্তু সেই ক্যাচ নিয়ে চলছে ব্যাপক সমালোচনা। নানা প্রশ্ন ডানা মেলেছে ক্রিকেট বোদ্ধাসহ ভক্তদের মনে। তাদের প্রশ্ন, ডেভিড মিলারের ওই শটটি কি ছক্কা হয়েছে? নাকি আউট হয়েছেন-তা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পক্ষে-বিপক্ষে চলছে বিস্তর আলোচনা।

এবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন ক্ষোদ দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক এইডেন মার্করাম। প্রোটিয়া অধিনায়ক বলেছেন, ‘সত্যি বলতে, আমি এটা এখনো দেখিনি। দেখতে পারিনি। হ্যাঁ, রিপ্লে একটু দ্রুতই হয়েছে। অবশ্যই তারা বেশ নিশ্চিতই ছিল যে এটা আউট এবং এই কারণেই রিপ্লে দ্রুত দেখেছে।’

হার্দিক পান্ডিয়ার করা ইনিংসের শেষ ওভারের প্রথম বলটি ছিল ফুলটস। উইকেটে থাকা ‘কিলার মিলার’ সোজা ব্যাট চালিয়ে দেন। লং অফে দারুণ দক্ষতায় বলটি শূন্য থেকে লুফে নেন সূর্যকুমার যাদব।

তবে এই ধরনের ক্যাচের ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত দিতে হয় তৃতীয় আম্পায়ারকে। ফুটেজ দেখে টিভি আম্পায়ার রিচার্ড কেটেলবরো নিশ্চিত হন, সেটি বৈধ ক্যাচ। তার সেই সিদ্ধান্ত আসতেই বিশ্বকাপ জয়ের পথে এগিয়ে যায় ভারত, বিপদে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা।

শেষ পাঁচ বলে সে বিপদ আর কাটিয়ে ওঠা হয়নি প্রোটিয়াদের। ৭ রানের জয়ে ১৭ বছর পর ভারতের ঘরেই যায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা।

টাইমলাইন: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪

আরো পড়ুন

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App