×

খেলা

মিলারের দৃঢ়তায় নেদারল্যান্ডসকে হারাল দ. আফ্রিকা

Icon

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

মিলারের দৃঢ়তায় নেদারল্যান্ডসকে হারাল দ. আফ্রিকা

মিলালের দৃঢ়তায় নেদারল্যান্ডসকে হারাল দ. আফ্রিকা। ছবি: ক্রিকইনফো

বিশ্বকাপের ১৬তম ম্যাচে নিউ ইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় দক্ষিণ আফ্রিকা ও নেদারল্যান্ডস। ‘ডি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে বিশ্বকাপে শুভসূচনা করে দক্ষিণ আফ্রিকা। দ্বিতীয় ম্যাচে নেপালকে হারিয়েছিল নেদারল্যান্ডস। শনিবার (৮ জুন) দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ওভারেই হোঁচট খায় ডাচরা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১০৩ রানের সংগ্রহ পায় ডাচরা। জবাবে ব্যাট করতে শুরুতেই ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেখান থেকে ডেভিড মিলারের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৭ বল হাতে রেখে ৪ উইকেটের জয় পায় প্রোটিয়ারা। 

ছোট লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকাও খুব একটা শুরু পায়নি। স্কোরবোর্ডে কোনো রান জমা না হতেই রানআউটে কাটা পড়েন ওপেনার কুইন্টন ডি’কক। পরের ওভারেই রিজা হেনড্রিকসকে হারায় আফ্রিকা। ১০ বলে ৩ রান এই ওপেনারকে সরাসরি বোল্ড আউট করে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান ফন বিক। পরের ওভারে এইডেন মারক্রামকে হারিয়ে বেশ চাপে পড়ে প্রোটিয়ারা। লেগ স্টাম্পের বাইরের বল ছেড়ে দিলে ব্যাটারের পেছন দিয়েই হয়তো চলে যেতো। তবে ভিব কিংমার বলটি খেলতে গিয়ে কিপারের হাতে ধরা পড়েন এই ব্যাটার। বাঁ দিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে দারুণ এক ক্যাচ নেন উইকেটরক্ষক এডওয়ার্ড। দক্ষিণ আফ্রিকার তখন ৩ বলে ৩ রান।

ইনিংস বড় করতে পারেননি হেনরিক্স ক্লাসেনও। ৭ বলে ৪ রান করে কিংমার বলে প্রিংগেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন এই ব্যাটার। দলীয় ১২ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে দল যখন খাদের কিনারায়, সেখান থেকে দলের হাল ধরেন ডেভিড মিলার ও স্টাবস। দু’জনে মিলে গড়েন ৭২ বলে ৬৫ রানের জুটি। ৩৭ বলে ৩৩ রান করে স্টাবস আউট হলেও দলের জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন ডেভিড মিলার। ৫১ বলে ৫৯ রানে অপরাজিত থাকেন এই ব্যাটার। ডাচদের হয়ে কিংমা ও লরগান ফন বিক নেন দুটি করে উইকেট। বাস ডি লিডে নেন এক উইকেট। 

টস হেরে ব্যাটিংয়ে শুরুটা ভাল হয়নি ডাচদের। পাওয়ার প্লে’র ৬ ওভারে তারা ৩ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে জমা করেন মাত্র ২০ রান। ইনিংসের প্রথম ওভারের তৃতীয় বলে প্রোটিয়াদের প্রথম ব্রেক থ্রো এনে দেন মার্কো জেনসেন। উইকেটের পেছনে ডি ককের হাতে ক্যাচ দিয়ে কোনো রান না করেই সাজঘরে ফেরেন নেদারল্যান্ডসের ওপেনার মাইকেল লেভিট। স্কোরবোর্ডে ১৫ রান জমা হতেই আরেক ওপেনারকে হারায় ডাচরা। ৬ বলে ২ রান করে অটনিল বার্টম্যানের বলে মার্কো জেনসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন ম্যাক্স ও’ডড। উইকেটে থিতু হওয়ার চেষ্টা করেও ব্যর্থ বিক্রম সিং। ১৭ বলে ১২ রান করা এই ব্যাটারকে সরাসরি বোল্ড করে প্যাভিলিয়নে পাঠান জেনসেন।

বাস ডি লিডে ১৬ বল খেলে ৬ রান করে নরকিয়ার বলে ডেভিড মিলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন এই ব্যাটার। স্কট এডওয়ার্ডস কাটা পড়েন রান আউটে। আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৯ বলে ১০ রান। তেজা নিদামানুরু প্রথম বলেই আউট হয়ে ফেরেন সাজঘরে। এরপর লরগান ফন বিককে নিয়ে ৫৪ রানের একটি জুটি গড়ে তোলেন সাইব্রান্ড এংগেলব্রেচট। ৪৫ বলে ৪০ রান করে বার্টম্যানের বলে জেনসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে এংগেলব্রেচট আউট হলে ভাঙে তাদের ৫৪ রানের জুটি।

এরপর টিম প্রিংগেল আউট হন কোনো রান না করেই। লরগার ফন বিক আউট হন ২২ বলে ২৩ করে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে শেষস পর্যন্ত ১০৩ রান করে নেদারল্যান্ডস। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে অটনিল বার্টম্যান নেন ৪ উইকেট। মার্কো জেনসেন ও অ্যানরিখ নরকিয়া নেন দুটি করে উইকেট। 


আরো পড়ুন: টেনেটুনে ১শ’ পার করলো নেদারল্যান্ডস


টাইমলাইন: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪

আরো পড়ুন

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App