×

খেলা

স্টয়নিসের নায়কোচিত পারফরম্যান্সে অস্ট্রেলিয়ার উড়ন্ত জয়

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ জুন ২০২৪, ১২:৩৬ পিএম

স্টয়নিসের নায়কোচিত পারফরম্যান্সে অস্ট্রেলিয়ার উড়ন্ত জয়

মার্কাস স্টয়নিসের নায়োকচিত পারফরম্যান্সে ওমানকে উড়িয়ে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ছবি সংগৃহীত

ব্যাট হাতে খেলেছেন ৩৬ বলে ৬৭ রানের ঝড়ো ইনিংস। ধাক্কা কাটিয়ে দলকে এনে দিয়েছেন লড়াকু পুঁজি। পরে হাত ঘুরিয়ে দেখিয়েছেন ঝলক। শিকার করেছেন গুরুত্বপূর্ণ ৩ উইকেট। তার নায়োকচিত পারফরম্যান্সে ওমানকে উড়িয়ে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।


১৬৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় ওমান। মিচেল স্টার্কের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরেন প্রতীক আথাভাল। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে প্যাভিলিয়নের পথ  ধরেন ক্যশপ প্রজাপতি। ১৫ বলে ৭ রান করে তিনি এলবিডব্লিউ হন নাথান এলিসের বলে।


পরের ওভারে আক্রমণে এসেই আঘাত হানেন স্টয়নিস। ওমানের অধিনায়ক আকিব ইলিয়াসকে অজি উইকেটরক্ষক ম্যাথু ওয়েডের গ্লাভসবন্দি করেন। নিজের পরের ওভারে এসে স্টয়নিস তুলে নেন জিশান মাকসুদের উইকেট। তার খাটো লেন্থের বলে ওয়েডের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন তিনি।


৩৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে ওমান। পঞ্চম উইকেটে খালিদ কাইলকে নিয়ে ২৩ রান যোগ করেন আয়ান খান। ১২ বলে ৮ রান করে স্টার্কের বলে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে ক্যাচ দেন খালিদ। পরের ওভারে শোয়েব খানকে বোল্ড করেন লেগ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা। এ নিয়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৩০০ উইকেট শিকারের মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি।  

৫৭ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর ১০০ রানের নিচে অলআউট হওয়ার শঙ্কা জাগে ওমানের। পরে একাই লড়ে পরাজয়ের ব্যবধান কমানোর চেষ্টা করেন আয়ান খান। আয়ান ও মেহরান মিলে গড়েন ৩২ রানের জুটি। ২ চার ও সমান ছক্কা মারা আয়ান জাম্পার বলে ক্যাচ দেন জহশ হ্যাজলউডের হাতে। ৩০ বলে ৩৬ রান করে সাজঘরে ফিরে যান তিনি। ১ চার ও ২ ছক্কা মেরে দর্শকদের আনন্দ দেন মেহরান খান। দ্রুতগতিতে রান তুলতে থাকা মেহরানকে ফেরান স্টয়নিস। লো ফুল্টস উড়িয়ে মারলে দারুণ এক ক্যাচ নেন টিম ডেভিড।


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ইতিহাসে তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে একই ম্যাচে পঞ্চাশের বেশি রান এবং ৩ উইকেট শিকার করার কীর্তি গড়েন স্টয়নিস। ৯ উইকেটে ১২৫ রান করে থামে ওমান। ২টি করে উইকেট লাভ করেন স্টার্ক, এলিস ও জাম্পা।


এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ১৬৪ রান করে অস্ট্রেলিয়া। ট্রাভিস হেড ১০ বলে ১২ রান করে বিদায় নেন। ফলে বড় হয়নি অজিদের ওপেনিং জুটি। পরে অধিনায়ক মিচেল মার্শও সংগ্রাম করেন। ২১ বলে ১৪ রান করে মেহরানের শিকার হন তিনি। পরের বলেই ফিরে যান গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। দুর্দান্ত ক্যাচ লুফে নিয়ে তাকে ফেরান আকিব ইলিয়াস।


৫০ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। তবে শঙ্কার মেঘ দূর করেন ডেভিড ওয়ার্নার ও মার্কাস স্টয়নিস। থিতু হওয়ার পর বিধ্বংসী রূপ ধারণ করেন স্টয়নিস। ব্যাট হাতে তুফান চালান তিনি। ১৫তম ওভারে একাই মারেন ৪ ছক্কা। শেষ পর্যন্ত ৩৭ বলে ৬৬ রান করে অপরাজিত ছিলেন ডানহাতি অলরাউন্ডার। তার ইনিংসে ছিল ২ চার আর ৬ ছক্কা। ১৯তম ওভারে আউট হওয়া ওয়ার্নারও তুলে নেন অর্ধশতক। তিনি করেন ৫১ বলে ৫৬ রান।

টাইমলাইন: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪

আরো পড়ুন

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App