×

খেলা

উগান্ডার সামনে আফগানিস্তানের রানের পাহাড়

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ০৪ জুন ২০২৪, ০৯:৪৭ এএম

উগান্ডার সামনে আফগানিস্তানের রানের পাহাড়

উগান্ডার সামনে আফগানিস্তানের রানের পাহাড়। ছবি: সংগৃহীত

ব্যাট করতে নেমে ১৮৩ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করিয়েও আফগানিস্তান হয়ত ভুগছে অনুশোচনায়। বিপরীতে এমন বিশাল টার্গেট দেখেও খানিকটা হয়ত স্বস্তি পাবে উগান্ডা। বিশ্বক্রিকেটের বড় মঞ্চে প্রথমবার এসেছিল আফ্রিকান দলটি। তাদের সামনে টি-টোয়েন্টির অন্যতম ডার্কহর্স আফগানিস্তান। ইব্রাহিম জাদরানকে সঙ্গে নিয়ে মাত্রই আইপিএল জিতে আসা রহমানউল্লাহ গুরবাজ উগান্ডার বিপক্ষে দাঁড় করালেন দেড়শ পার করা ওপেনিং জুটি। 

একটা পর্যায়ে ধারণা করা হয়েছিল, এই ম্যাচেই হয়ত বিশ্বকাপে প্রথম দুইশ পেরুনো ইনিংস দেখবে ক্রিকেট দুনিয়া। তবে কিছুটা হতাশ হতেই হলো আফগানিস্তানের শেষ দিকের ব্যাটিংয়ে। আর উগান্ডা ডেথ ওভারে উপহার দিল পিকচার পারফেক্ট বোলিং। শেষ ৫ ওভারে তারা দিয়েছে মোটে ২৫ রান। ১৪ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ১৫৪ রান তোলা আফগানিস্থান ২০ ওভারে করল ৫ উইকেটে ১৮৩। 

প্রতিপক্ষ নবাগত উগান্ডা। পুঁচকে দলটাকে সামনে পেয়েই কি না আফগানিস্তান স্বপ্ন দেখল বড় সংগ্রহ দাঁড় করানোর। ইব্রাহিম জাদরান আর গুরবাজ করলেন তেমন এক শুরু। ব্যাটারদের আগ্রাসী মনোভাবই বুঝিয়ে দিয়েছিল শুধু জয় পাওয়া লক্ষ্য না। রানরেটের দিকেও নজর আছে তাদের। দুজনেই ছিলেন আগ্রাসী। গুরবাজ ৪৫ বল খেলে মেরেছেন ৪ ছক্কা ও ৪ চার। জাদরান ৪৬ বল খেলে মেরেছেন ৯ চার ও ১ ছক্কা। দুজনের উদ্বোধনী জুটি তুলল ১৫৪ রান। 

উগান্ডা প্রথমবার এসেছে বিশ্বকাপ খেলতে। শুরুর এই ধাক্কা সামলে নিতে সময় লাগলো অনেকটা। শেষ পর্যন্ত ত্রাতা হলেন অধিনায়ক ব্রায়ান মাসাবা নিজেই। ৪৫ বলে ৭০ করা ইব্রাহিম জাদরানকে বোল্ড করে ফেরান সাজঘরে। এরপরের সময়টা কেবলই উগান্ডার। একের পর এক আফগান ব্যাটার কেবল এসেছেন আর গিয়েছেন। 

আলপেশ রামজানির বলে বাউন্ডারি লাইনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ৭৬ রান করা গুরবাজ। এরপর নাজিবুল্লাহ জাদরান ২, গুলবাদিন নাইব ৪ আর আজমতউল্লাহ ওমরজাই ফেরেন ৫ রানে। মোহাম্মদ নবী করেছেন ১৬ বলে ১৪। সবচেয়ে বড় কথা, গুরবাজ এবং ইব্রাহিম জাদরান ছাড়া আফগানদের হয়ে বাউন্ডারি হাঁকাতে পারেননি কেউই।

আরো পড়ুন: লঙ্কাকে হারিয়ে শুভ সূচনা প্রোটিয়াদের

উগান্ডার হয়ে বল হাতে ২টি করে উইকেট পেয়েছেন ব্রায়ান মাসাবা এবং কসমস কুয়েটা। বাকি উইকেট গিয়েছে আলপেশ রামজানির কাছে। 

টাইমলাইন: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪

আরো পড়ুন

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App