×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

খেলা

ব্যাটিং ব্যর্থতায় ভরাডুবি শ্রীলঙ্কার

Icon

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ জুন ২০২৪, ১১:৪১ পিএম

ব্যাটিং ব্যর্থতায় ভরাডুবি শ্রীলঙ্কার

শ্রীলঙ্কাকে ৬ উইকেটে হারালো দ. আফ্রিকা

চলতি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কা। নিউ ইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নামে শ্রীলঙ্কা। তবে ইনিংসের শুরুটা একেবারেই ভাল হয়নি তাদের। শুরু থেকেই লঙ্কান শিবিরে ছিল আসা-যাওয়ার মিছিল। সেই মিছিলে একে একে যোগ দিয়েছেন শ্রীলঙ্কার ১০ জন ব্যাটার। দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের তোপের মুখে পড়ে ৫ বল বাকি থাকতেই সবগুলো উইকেট হারিয়ে মাত্র ৭৭ রানে অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১৯ রান করেন কুশাল মেন্ডিস। এছাড়া অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ও কামিন্দু মেন্ডিস ছাড়া আর কেউই ছুতে পারেননি দুই অঙ্কোর ঘর। 

জবাবে ব্যাট করতে নেমে জয় পেতে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি দক্ষিণ আফ্রিকাকে। তবুও চারটি উইকেট বিসর্জন দিতে হয়েছে প্রোটিয়াদের। পরে ক্লাসেন ও ডেভিড মিলার দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। ২২ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটের জয় পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। শ্রীলঙ্কার হয়ে দাসুন শানাকা, নুয়ান থুসারা নেন একটি করে উইকেট। হাসারাঙ্গা নিয়েছেন দুটি উইকেট।

আরো পড়ুন: বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার লজ্জার রেকর্ড

ছোট লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরতেই উইকেট হারায় তারা। স্কোরবোর্ডে ১০ রান জমা হতেই রিজা হেন্ড্রিক্সের উইকেট তুলে নেন নুয়ান থুসারা। এইডেন মারকারামকে বেশিদূর যেতে দেননি শানাকা। তার বলে কামিন্দু মেন্ডিসের ক্যাচ হয়ে সাজঘরে ফেরেন এই ব্যাটার। আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ১৪ বলে ১২ রান। কুইন্ডন্ট ডি কক খেলছিলেন বেশ স্বাচ্ছন্দ্যেই খেলছিলেন। তাকে থামান ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। ২৭ বলে ২০ করে হাসারাঙ্গার বলে তার হাতেই ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই ব্যাটার। এরপর ক্রিজে টিকতে পারেননি ত্রিস্তান স্টাবসও। ২৮ বলে ১৩ করে হাসারাঙ্গার বলে আসালাঙ্কার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই ব্যাটার। 

আগে ব্যাট করতে নেমে স্কোরবোর্ডে ১৩ রান জমা হতেই উইকেট হারিয়ে বসে শ্রীলঙ্কা। বিশ্বকাপে অভিষেক হওয়া অটনিল বার্টম্যানের করা ওভারের প্রথম বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ডিপ থার্ডম্যানে থাকা হেনরিখ ক্লাসেনে হাতে ক্যাচ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন নিশাঙ্কা। আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৮ বলে ৩ রান। পাওয়ার প্লে’র ৬ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কা রান তুলেছে মাত্র ২৪।

লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের রীতিমতো চেপে ধরেন আফ্রিকান বোলাররা। একের পর এক উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকেই ছিটকে যেতে থাকেন শ্রীলঙ্কা। ৩২ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে শ্রীলঙ্কা। এক রানের ব্যবধানেই দুই উইকেট হারিয়ে বসে তারা। কামিন্দু মেন্ডিস আউট হন ১৫ বলে ১১ রান করে। ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ও সাদিরা সামারাবিক্রমা আউট হন শূন্য রানে।

ইনিংস বড় করতে পারেননি কুশল মেন্ডিসও। নটরজানের শর্ট লেন্থের বল উড়িয়ে মারতে গিয়ে ডিপ স্কয়ার লেগে থাকা ত্রিস্তান স্টাবসের হাতে ধরা পড়ে কুশল মেন্ডিস। আউট হওয়ার আগে ৩০ বল খেলে ১৯ রান করেন মেন্ডিস। চারিথ আসালাঙ্কাও ছুঁতে পারেননি দুই অঙ্কের ঘর। ৯ বলে ৬ রান করে নটরজানের বলে রিজা হেনন্ড্রিক্সের হাতে ক্যাচ তুলে দেন এই ব্যাটার। দাসুন শানাকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধের আভাস দিচ্ছিলেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। তবে বেশিদূর যেতে পারেনি এই জুটি। ২০ বলে ২৩ রানের ছোট্ট এই জুটিটি ভাঙেন রাবাদা। শানাকাকে সরাসরি বোল্ড আউট করে সাজঘরে ফেরান এই বোলার।

ম্যাথিউসও বড় করতে পারেননি তার ইনিংস। নরকিয়ার বলে অটনিল বার্টম্যানের হাতে ক্যাচ হয়ে সাজঘরে ফেরেন এই অলরাউন্ডার। আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ১৬ বলে ১৬ রান। মহেশ পাথিরানা ফেরেন কোনো রান না করেই। রাবাদার বলে মারকারামের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন এই ব্যাটার। ইনিংসের শেষ ওভারের প্রথম বলে নুয়ান থুসারা রানআউটে কাটা পড়লে ৭৭ রানেই থামে শ্রীলঙ্কার ইনিংস। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে নরকিয়া নেন ৪ উইকেট। কেশভ মহারাজ ও রাবাদা নেন দুটি করে উইকেট। বিশ্বকাপে অভিষেক হওয়া অটনিল বার্টম্যান নিয়েছেন ১ উইকেট।    

টাইমলাইন: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪

আরো পড়ুন

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App