র‌্যাব মহাপরিচালক : নাশকতার তথ্য নেই তবুও সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছি

আগের সংবাদ

বাংলাদেশের গর্ব, বিশ্বের বিস্ময় : জাতীয়-আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে যেভাবে ডানা মেলল স্বপ্নের পদ্মা

পরের সংবাদ

হাইকোর্টে জামিন পাননি হলমার্কের জিএম তুষার

প্রকাশিত: জুন ২৪, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জুন ২৪, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : ১৩৫ কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় হলমার্ক গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) তুষার আহমেদকে জামিন দেননি হাইকোর্ট। তবে বিচারিক আদালতকে ছয় মাসের মধ্যে মামলাটি নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি এ এস এম আব্দুল মোবিন ও বিচারপতি মো. আতোয়ার রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে তুষারের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী শাহদীন মালিক। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সুজিত চ্যাটার্জি বাপ্পী।
পরে সুজিত চ্যাটার্জি বাপ্পী সাংবাদিকদের বলেন, হলমার্কের তুষার আহমেদকে জামিন না দিয়ে তার বিরুদ্ধে এ মামলাটি ছয় মাসের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে এটাও বলে দিয়েছেন, এ সময়ের মধ্যে যদি মামলাটির বিচারকাজ শেষ না হয়, আর তখন যদি তুষার আহমেদ জামিন চান তবে বিচারিক আদালত যেন তার জামিন আবেদনটি বিবেচনা করেন। সোনালী ব্যাংকের হোটেল শেরাটন শাখা থেকে ১৩৫ কোটি ৪৪ লাখ ৯ হাজার ৪৮৪ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০১২ সালের ৪ অক্টোবর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক মো. নাজমুচ্ছায়াদাত রমনা থানায় এ মামলা করেন। এতে হলমার্ক গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. তানভীর মাহমুদ ওরফে তফছীর, চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলাম ও মহাব্যবস্থাপক তুষার আহমেদ ও সোনালী ব্যাংকের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাসহ ১৮ জনকে আসামি করা হয়। হলমার্ক গ্রুপের ১১টি প্রতিষ্ঠানের নামে ভুয়া এলসি (লেটার অব ক্রেডিট) খুলে ২০১১ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে ২০১২ সালের ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সময়ে এই বিপুল পরিমাণ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয় আসামিদের বিরুদ্ধে। এ মামলায় তুষারকে ২০১২ সালের ৮ অক্টোবর গ্রেপ্তার করা হয়। তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ৬ অক্টোবর ১৭ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। এরপর ২০১৬ সালের ২৭ মার্চ আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন বিচারিক আদালত।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়