চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা : চালকের সহকারী শাহীরুল এখন কোটিপতি

আগের সংবাদ

তিস্তার তাণ্ডবে লালমনিরহাটে পথে বসেছে হাজারো পরিবার

পরের সংবাদ

রংপুরে সহিংসতা : অভিযুক্ত সৈকত ও রবিউল কারাগারে

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক, রংপুর : রংপুরের পীরগঞ্জে সহিংসতার ঘটনায় ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া সৈকত মণ্ডল। গতকাল রবিবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে রংপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দেলোয়ার হোসেনের আদালতে সে এই জবানবন্দি দেয়। পরে শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের সাধারণ নিবন্ধক শহিদুর রহমান।
এদিকে হিন্দু পল্লীতে অগ্নিসংযোগ, ভাঙচুর ও লুটপাটের মামলায় ৩ দিনের রিমান্ডে থাকা ৩৭ আসামিকে বিকালে আদালতে তোলা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান নতুন করে রিমান্ড আবেদন না করায় শুনানি শেষে তাদেরও কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। তবে আসামিদের পক্ষে জামিন আবেদন করেছিলেন একাধিক আইনজীবী। সেই আবেদন নামঞ্জুর হয়।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বলেন, রিমান্ডে থাকা আসামিদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। আমরা তদন্ত করছি। প্রয়োজনে আবারো রিমান্ডের আবেদন করা হবে।
সৈকত মণ্ডলের মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পীরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক সুদীপ্ত শাহীন জানান, র‌্যাবের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা মামলায় আসামি সৈকতকে আদালতে হাজির করা হয়। সে স্বেচ্ছায় ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।
সুদীপ্ত শাহীন জানান, মসজিদের ইমাম রবিউল ইসলাম অগ্নিসংযোগ, ভাঙচুর ও লুটপাটের মামলায় আদালতে তোলা হলে সেও স্বেচ্ছায় ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা জানিয়েছে।
রংপুরের সহিংসতার ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত সদ্য সাবেক ছাত্রলীগ নেতাসহ দুজনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছে র?্যাব। গতকাল রবিবার সকালে পীরগঞ্জ থানায় এ মামলা করেন র?্যাব-১৩-এর ডিএডি আব্দুল আজিজ। আসামিরা হলো- সৈকত মণ্ডল ও তার সহযোগী বটেরহাট মসজিদের ইমাম রবিউল ইসলাম। মামলার তদন্তভার দেয়া হয়েছে থানার উপপরিদর্শক সুদীপ্ত শাহীনকে।
সৈকত মণ্ডল কারমাইকেল কলেজের ছাত্রলীগ নেতা ছিল। ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট দেয়ায় সম্প্রতি তাকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেয়ার কথা জানায় ছাত্রলীগ।
উল্লেখ্য, গত ১৭ অক্টোবর রাত সাড়ে ৯টার দিকে ফেসবুকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার ঘটনায় পীরগঞ্জের রামনাথপুর উত্তরপাড়া

হিন্দু পল্লীতে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পৃথক চারটি মামলা হয়। এর মধ্যে তিনটি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে। একটি অগ্নিসংযোগ, ভাঙচুর ও লুটপাটের মামলা। গতকাল পর্যন্ত এ চার মামলায় ৬৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়