চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা : চালকের সহকারী শাহীরুল এখন কোটিপতি

আগের সংবাদ

তিস্তার তাণ্ডবে লালমনিরহাটে পথে বসেছে হাজারো পরিবার

পরের সংবাদ

খন্দকার মোশাররফ : দ্রব্যমূল্যে ঊর্ধ্বগতির পেছনে আওয়ামী সিন্ডিকেট

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির পেছনে সরকারদলীয় সিন্ডিকেট রয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেছেন, জনগণ আজকে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে যেমন দিশাহারা; তেমনিভাবে আওয়ামী দুঃশাসনে, তাদের অত্যাচার-নির্যাতন-চাঁদাবাজিতে নিষ্পেষিত।
গতকাল রবিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির উদ্যোগে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে এসব কথা বলেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। সরকার এর লাগাম টেনে না ধরে বরং দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির পেছনে আওয়ামী সিন্ডিকেটকে উৎসাহিত করছে। যার ফলে চাল-ডাল থেকে শুরু করে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি বাড়ছে। সরকার কোনো রকম ব্যবস্থা নিতে পারছে না। খন্দকার মোশাররফ বলেন, জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে চাইলে একমাত্র লক্ষ্য হবে এ সরকারকে বিদায় দেয়া। জনগণের দাবিও একটাই- আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু নিরপেক্ষ ও সব দলের অংশগ্রহণে হতে হবে। সে নির্বাচন হতে হলে শেখ হাসিনা সরকারকে হটিয়ে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার প্রতিষ্ঠা করে নির্বাচন দিতে হবে।
জনগণ যাদের চায়, তাদের ভোট দিয়ে এ দেশে সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আর তাহলেই জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হবে।
বিএনপি নেতা বলেন, দেশে যখন এ পরিস্থিতি তখন সরকার নানা ষড়যন্ত্র করছে। আমরা বলতে চাই, যারা এ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে বাংলাদেশে অরাজকতা পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায় তারা আজকের এ সরকার। কেননা আগামী দিনে যে আন্দোলন-সংগ্রাম রয়েছে সে দিক থেকে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য এটা করা হচ্ছে।
ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়