চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা : চালকের সহকারী শাহীরুল এখন কোটিপতি

আগের সংবাদ

তিস্তার তাণ্ডবে লালমনিরহাটে পথে বসেছে হাজারো পরিবার

পরের সংবাদ

করোনা আক্রান্তদের পাশে কেকেএস

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি : করোনার প্রকোপ যখন ভয়াবহ, তখন গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার আনাচে-কানাচে সচেতনতামূলক পোস্টার, ব্যানার লাগিয়েছিল স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন কালীগঞ্জ কল্যাণ সংস্থা (কেকেএস)। এরপর সংগঠনের পক্ষ থেকে স্থানীদের জন্য বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। বিনামূল্যে বিতরণ করা হয় ২০ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক। এটা অবশ্য করোনার প্রথম ঢেউয়ের কথা।
করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায়ও সংগঠনটি কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এবার অক্সিজেনের ৬টি সিলিন্ডার নিয়ে করোনা আক্রান্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে কালীগঞ্জ কল্যাণ সংস্থা। করোনায় আক্রান্ত স্থানীয় দরিদ্র মানুষের জন্য ফ্রি অক্সিজেন সার্ভিস দিচ্ছে তারা।
কালীগঞ্জ পৌর এলাকার চৌড়া গ্রামের বাসিন্দা কাজী জাহেদ জানান, তার চাচি করোনায় আক্রান্ত হয়ে শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। পরে কালীগঞ্জ কল্যাণ সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করলে সংগঠনের পক্ষে বিনামূল্যে ১টি অক্সিজেন সিলেন্ডার দেন। আর এই অক্সিজেন সিলেন্ডার ব্যবহার করে বর্তমানে তিনি ভালো আছেন বলেও জানান ওই উপকারভোগী।
একই গ্রামের আশরাফুল হক শিশির জানান, উপজেলার তুমলিয়ার ইউনিয়নের উত্তরসোম গ্রামে তার এক আত্মীয়র জন্য একটি অক্সিজেন সিলেন্ডার নিয়ে উপকৃত হয়েছেন। একই কথা বলেন উপজেলার বালীগাঁও গ্রামের বাসিন্দা লিটন খান।
কালীগঞ্জ কল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মো. মাশহুদুর রহমান সাজেদ বলেন, ‘বিগত দিনেও সংগঠনের পক্ষে স্থানীয়দের জন্য এবং করোনা আক্রান্তদের জন্য সংগঠনের নানামুখী কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে। তাই করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় প্রথমে অক্সিজেনের ৪টি সিলিন্ডারের মাধ্যমে সংগঠনের পক্ষে এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।
পরে চাহিদার কারণে আরো দুটি যোগ করা হয়। তবে ভবিষ্যতে করোনায় গরিব ও দুস্থদের আক্রান্তের সংখ্যা দেখে অক্সিজেন সিলিন্ডারের প্রয়োজনে হলে আরো বৃদ্ধি করা হবে বলেও জানান তিনি। সংগঠনের সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বলেন,‘করোনা পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে কালীগঞ্জ কল্যাণ সংস্থা মানবিক কার্যক্রম নিয়ে মানবতার পাশে দাঁড়াতে তৈরি হয়। সেই প্রথম থেকে অনেক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সর্বশেষ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায়ও আমরা সংগঠনের পক্ষ থেকে ৬টি অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে পাশে ছিলাম এবং এখনো আছি।’

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়