সারাদেশে পূজামণ্ডপে হামলা : চাঁদপুরে সংঘর্ষে নিহত ৩

আগের সংবাদ

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের টার্গেট কী? প্রথম ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ-সাকিবের মাঠে নামা নিয়ে দোটানা

পরের সংবাদ

মানিকগঞ্জে স্কুল শিক্ষার্থীদের পরীক্ষামূলক টিকাদান

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

মো. তজুমুদ্দিন, মানিকগঞ্জ সদর : মানিকগঞ্জে স্কুলশিক্ষার্থীদের মধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। মানিকগঞ্জে কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। গতকাল বৃহস্পতিবার মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র মুসাব্বির রহমানকে পরীক্ষামূলক করোনা ভাইরাসের টিকা প্রয়োগের মাধ্যমে কার্যক্রম শুরু

হয়। এ সময় স্বাস্থ্য বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ জেলার ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. মো. লুৎফর রহমান, কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মো. জাকির হোসেনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ১২-১৭ বছর বয়সি শিক্ষার্থীদের টিকাদান কার্যক্রম মানিকগঞ্জ থেকে শুরু হয়েছে। মানিকগঞ্জের ৪টি স্কুলের ১২০ জন শিক্ষার্থীকে টিকা দেয়া হবে। আগামী সাত দিন এদের পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। দুই সপ্তাহের মধ্যেই দেশের ২১টি কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়া হবে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, আজকে আমাদের জন্য একটি আনন্দের দিন। প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছা ছিল- শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়ার। আমরা সেই কার্যক্রম শুরু করেছি। কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের পরীক্ষামূলকভাবে করোনার টিকা প্রয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হলো। আজ ১২০ জনকে করোনার টিকা দেয়া হবে। পরে দেশের প্রায় ২১টি জায়গায় এই টিকা কর্মসূচি শুরু করব। আমরা প্রাথমিকভাবে প্রায় ৩০ লাখ শিক্ষার্থীকে টিকা দেব।
তিনি বলেন, আমাদের ছেলেমেয়েরা স্কুলে আসছে। তারা যাতে করোনা ভাইরাস থেকে নিরাপদে এবং সুরক্ষিত থাকে এজন্য পরীক্ষামূলকভাবে তাদের টিকা দেয়া শুরু করলাম। আমাদের হাতে এখন ৬০ লাখ টিকা আছে, যা আমরা ৩০ লাখ ছেলেমেয়েকে দিতে পারব। বাংলাদেশে প্রায় এক কোটির বেশি শিক্ষার্থী রয়েছে। আশা করছি, পর্যায়ক্রমে সবাইকে টিকার আওতায় আনতে পারব।
বাংলাদেশের প্রথম টিকা নেয়া মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র মুসাব্বির রহমান বলেন, আমি বাংলাদেশে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সর্বপ্রথম টিকা নিয়েছি। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এজন্য নিজের কাছে গর্বও লাগছে। টিকা নেয়ার পর এখনো কোনো সমস্যা হয়নি।
মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ জন, এসকে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ জন, আলহাজ জাহিদ মালেক উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ জন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ জন শিক্ষার্থীকে পরীক্ষামূলক টিকা শিক্ষার্থীকে ফাইজারের টিকা দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়