সারাদেশে পূজামণ্ডপে হামলা : চাঁদপুরে সংঘর্ষে নিহত ৩

আগের সংবাদ

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের টার্গেট কী? প্রথম ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ-সাকিবের মাঠে নামা নিয়ে দোটানা

পরের সংবাদ

খালে পড়ে নিখোঁজ ব্যক্তিকে ৬ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৫, ২০২১ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

কাগজ প্রতিবেদক : খালে পড়ে ৬ ঘণ্টা নিখোঁজ থাকার পর এক ব্যক্তিকে জীবিত উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দল। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে মিরপুর বাউনিয়াবাঁধ এলাকা সংলগ্ন লোহার ব্রিজ খাল থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। তার নাম মো. মানিক মিয়া (৪০)। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন বলে জানা গেছে।
স্থানীয়রা জানান, গতকাল সকালে খালে পড়ে যান এই ব্যক্তি। খবর পেয়ে সকাল ৯টার দিকে ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফিন্সের ডুবুরিরা ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। উদ্ধার হওয়া মো. মানিক মিয়ার ছেলে রিয়াজ ভোরের কাগজকে জানান, পল্লবী ১২ নম্বর সেকশনের ৩ নম্বর সড়কের ১১ নম্বরে বাসা তাদের। বাবার সঙ্গে মিলে এলাকাতেই একটি চায়ের দোকান চালাতেন তারা। কয়েকদিন আগে তার বাবার বেশ জ¦র হয়। এর মধ্যেই গত মঙ্গলবার ঘর থেকে হঠাৎ বের হয়ে যান তিনি। অনেক খোঁজার পরেও বাবাকে না পাওয়ায় পল্লবী থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার বাবার খালে পড়ে যাওয়ার বিষয় শুনে হাসপাতালে যান রিয়াজ। তার বাবার অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে বলেও জানান তিনি। ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক (জোন-২) মো. আবুল বাশার বলেন, প্রায় ছয় ঘণ্টা চেষ্টার পর মিরপুরের কালশী এলাকায় ২২তলা গার্মেন্টসের পাশে সুয়ারেজের খালে পড়ে যাওয়া নিখোঁজ ওই ব্যক্তিকে লোহার ব্রিজ খাল থেকে বিকাল ৩টার দিকে উদ্ধার করি। খালের পানির স্রোতে ভেসে সেখানে চলে যান ওই ব্যক্তি। ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট তাকে জীবিত অবস্থায় পায়। উদ্ধারের পরও হাত-পা ও চোখ নড়ছিল তার। পরে তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়ার জন্য পরবর্তী ব্যবস্থা নিতে পল্লবী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।
এ বিষয়ে পল্লবী থানার এসআই সামিউল বলেন, ইসলামিয়া হাসপাতালে নিয়ে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। চিকিৎসক জানিয়েছেন, তার গুরুতর কোনো সমস্যা নেই।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়