সাক্ষাৎকার > করোনাকালে শহীদুল হক : ক্ষমতার বাহাদুরি করা উচিত নয়

মঙ্গলবার, ২৮ এপ্রিল ২০২০

ইমরান রহমান : পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক বলেছেন, করোনায় চেনা পৃথিবী অচেনা রূপ ধারণ করেছে। থেমে গেছে মানুষের স্বাভাবিক প্রাণচাঞ্চল্য। যা কখনোই কল্পনা করিনি। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে সবাইকে ঘরে থাকতে হবে। এছাড়া কোনো উপায় নেই। অসহায় মানুষ পেটের জ্বালায় বাইরে বের হয়ে আসছে। তাদের ঘরে রাখতে সরকারের পাশাপাশি সমাজের সামর্থ্যবানদের আরো ব্যাপক পরিসরে এগিয়ে আসতে হবে।

করোনা প্রতিরোধে সরকারের কার্যক্রমকে স্বাগত জানিয়ে সাবেক পুলিশ প্রধান আরো বলেন, সরকার করোনা প্রতিরোধে যে কার্যক্রম হাতে নিয়েছে তা অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার। পাশাপাশি পুলিশ ও সেনাবাহিনী অক্লান্ত প্রচেষ্টা করে যাচ্ছে। ঊর্ধ্বতনদের উচিত তাদের সুরক্ষা নিশ্চিতে সব ধরনের পদক্ষেপ নেয়া। করোনাকালে সময় কিভাবে কাটছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঘরে বসেই সময় কাটাচ্ছি। যেহেতু রমজান মাস, রোজা রাখার পাশাপাশি নামাজ পড়ছি। আগে সময় না পেলেও এই সুযোগে কোরআন খতম দেয়ার চেষ্টা করছি। দেশ-বিদেশের বন্ধুবান্ধবদের খোঁজখবর নিচ্ছি। আমার বড় ছেলে আমেরিকা প্রবাসী। দুই নাতিও রয়েছে। ওখানকার পরিস্থিতি ভালো না হওয়ায় একটু দুশ্চিন্তা হচ্ছে। পাশাপাশি আরো দুই ছেলে পড়াশোনা করছে আমার কাছে থেকেই। স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় ওদের নিয়ে চিন্তা হয়। এছাড়া দুই ভাই জনপ্রতিনিধি হওয়ায় ওদের নিয়েও ভয় হয়। সব মিলিয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছি। পারিবারিক ফাউন্ডেশন থেকে অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। ইতোমধ্যে ২ হাজার মানুষকে সহায়তা করার সৌভাগ্য হয়েছে।

করোনায় মানুষের চেতনার কি ধরনের পরিবর্তন এসেছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, করোনায় মানুষ আত্মকেন্দ্রিক হয়ে গেছে। টাকা-পয়সা বা সামরিক শক্তি যে কিছুই নয়- এটা এখন সারা পৃথিবীর মানুষের মধ্যে স্পষ্ট হয়ে গেছে। অর্থাৎ মানুষের মধ্যে এই বোধ সৃষ্টি হয়েছে যে ক্ষমতার বাহাদুরি করা উচিত নয়। এই চেতনা সবার মধ্যে অব্যাহত থাকবে বলে বিশ্বাস করি।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj