বাফুফেকে চার কোটি টাকা দিচ্ছে ফিফা

মঙ্গলবার, ২৮ এপ্রিল ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে স্থবির সব দেশের ক্রীড়াঙ্গন। এমন অবস্থায় আর্থিক সহায়তার মাধ্যমে সদস্যদের পাশে দাঁড়াচ্ছে ফিফা। ক্ষতিপূরণ হিসেবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে (বাফুফে) চার কোটি টাকার ওপর আর্থিক সহায়তা করছে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

চলতি ২০১৯-২০ সালের ‘অপারেশনাল’ তহবিল বণ্টন করা হবে সদস্য দেশগুলোর মধ্যে। ২০২০ সালের অপারেশনালের অর্থ জুলাইয়ে দেয়ার কথা থাকলেও ফুটবলের এই কঠিন সময়ে দেশগুলোর পাশে দাঁড়াতে আগেই দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে ফিফা। তাদের অনুদানে প্রত্যেক সদস্য দেশের জন্য বরাদ্দ থাকছে ৫ লাখ ইউএস ডলার। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ ৪ কোটি ২৫ লাখ। এর সঙ্গে বাড়তি তহবিলের অর্থও যোগ হতে পারে। করোনা ভাইরাসের কারণে আর্থিক সহায়তায় কোনো মানদণ্ড থাকছে না। প্রত্যেক সদস্য দেশ দ্রুততম সময়ের মধ্যে পেয়ে যাবে এই অনুদান।

দেশের ফুটবলের সকল টুর্নামেন্ট স্থগিত করার প্রায় এক মাস পেরিয়ে গেছে। চলমান প্রিমিয়ার লিগ, চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ, নারী লিগ, জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ, বঙ্গবন্ধু স্কুল টুর্নামেন্টসহ সব ফুটবল টুর্নামেন্টই স্থগিত করতে হয়েছে ফেডারেশনকে। এতে প্রায় ৭ কোটি টাকার মতো লোকসান গুনতে হয়েছে বাফুফেকে। ক্ষতির বিষয়টি নিশ্চিত করে ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেন, ‘আমাদের যে লিগগুলো রয়েছে- বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ, চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ, নারী লিগ, বঙ্গবন্ধু জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ, স্কুল ফুটবলসহ বিভিন্ন খেলা যেগুলো কোভিড-১৯ এর জন্য স্থগিত করতে হয়েছে। ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৫-৭ কোটি টাকার মতো।

সবচেয়ে বড় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলো। করোনার কারণে স্থবির লিগের ক্লাবগুলো আর্থিক সংকটে পড়েছে। সেই ক্ষতিপূরণেও আওতায় আনা হবে বলে জানান সোহাগ, ‘বিশেষ করে প্রিমিয়ার লিগের ফুটবল ক্লাবগুলোর জন্য আর্থিক সহায়তা দেয়া যায় কিনা সেটা ভাবছি। ফিফার পজিটিভ ফিডব্যাক থাকলে ক্লাবগুলোর জন্য কাজ করব।’

করোনা দুর্যোগ মোকাবিলায় বিশাল আর্থিক সহায়তায় ২১১ সদস্য দেশকে ফিফা দিচ্ছে ১৫০ মিলিয়ন ডলার, বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটা ১ হাজার ২৭৪ কোটি টাকা।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj