পেকুয়ায় স্কুল কক্ষ থেকে ১৫ টন ত্রাণের চাল জব্দ

মঙ্গলবার, ২৮ এপ্রিল ২০২০

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি : কক্সবাজারের পেকুয়ায় একটি স্কুল কক্ষ থেকে ১৫ টন চাল জব্দ করা হয়েছে। গত রবিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া হোসনে আরা বালিকা বিদ্যালয়ের একটি কক্ষ থেকে এসব চাল জব্দ করে। এ ঘটনায় ওয়াহিদুর রহমান ওয়ারেছি নামে এক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়েছে।

জব্দকৃত চালগুলোর কাগজপত্র দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে পেকুয়া থানার ওসি মো. কামরুল আজম জানান। তিনি বলেন, রাতেই চালগুলো স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোস্তফা আলীর জিম্মায় দেয়া হয়।

প্রধান শিক্ষক মোস্তফা আলী বলেন, এর আগে রাত ৯টার দিকে স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি নাইট গার্ড থেকে চাবি নিয়ে স্কুলের একটি কক্ষে চালের বস্তাগুলো রাখেন। তবে চালের বস্তা রাখার বিষয়ে আগে থেকে তিনি কিছু জানতেন বলে জানান।

সূত্র জানায়, পেকুয়া বারবাকিয়া হোসনে আরা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জব্দকৃত চাল মাঠ ভরাটের জন্য বরাদ্দ। মাঠ ভরাট করতে ১১৭.৪২ টন চাল বরাদ্দ করে কাজ চলছিল। ওই কাজের বিপরীতে বরাদ্দ চালের বেশির ভাগ ইতোমধ্যে উত্তোলন করা হয়েছে। অবশিষ্ট ছিল ২৮ টন। এই চালের মধ্য থেকে ডিও নিয়ে ১৫ টন চাল উত্তোলন করে স্কুলে রাখা হয়।

অন্যদিকে টৈটংয়ে ত্রাণ দেয়ার জন্য ৩১ মার্চ ১৫ টন চালের একটি ডিও প্রণয়নপূর্বক ৬ এপ্রিল চাল উত্তোলন করা হলেও ওই চাল বিতরণ হয়নি। ত্রাণের চাল গায়েব নিয়ে কয়েকজন ব্যক্তি ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিলে কক্সবাজারজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়।

ত্রাণের চাল নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠলে একজন চেয়ারম্যান ওই চালগুলো ক্রয় করে বিতরণ করতে চান। কিন্তু ২৬ এপ্রিল রাতে পুলিশ অভিযানে গেলে সব ভণ্ডুল হয়ে যায়।

পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাঈকা সাহাদাত বলেন, চাল জব্দের বিষয়টি তিনি শুনেছেন। তবে চালগুলো সরকারি বরাদ্দকৃত চাল কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে।

সারাদেশ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj