চট্টগ্রামে সালিশি বৈঠকে যুবক খুন

রবিবার, ২৬ এপ্রিল ২০২০

কর্ণফুলী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানা এলাকায় চুরির ঘটনা মীমাংসায় সালিশি বৈঠক চলাকালেই প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আরিফুল ইসলাম দোভাষ (২২) নামের এক যুবক খুন হয়েছেন। গতকাল শনিবার উপজেলার চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের কুইদ্দারটেক এলাকার বানু বাপের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। তিনি একই এলাকার আহমদ হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় পারভেজ নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। তবে মূল অভিযুক্ত এখনো পলাতক রয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

জানা যায়, বুধবার উপজেলার চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের কুইদ্দারটেক এলাকার বানু বাপের বাড়িতে মোহাম্মদ সেলিমের ঘর থেকে ফ্যান, মোটর ও অলঙ্কারসহ বিভিন্ন মালামাল চুরি হয়। শুক্রবার রাতে এসব চোরাই মাল পাশের ঘরের মোহাম্মদ কায়সারের ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়। বিষয়টির সমাধান নিয়ে গতকাল শনিবার সকালে দুপক্ষের মধ্যে সালিশি বৈঠকে বসে।

ওই বৈঠকের এক পর্যায়ে তর্কাতর্কি শুরু হলে আরিফুল ইসলাম দোভাষের গলায় ছুরিকাঘাত করে কায়সার। লোকজন আরিফুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যান। পুলিশ এ খুনের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের জন্য গেলে স্থানীয় লোকজন তাতে বাধা দেয়। পরে র‌্যাব-৭ এর একটি টিম অভিযুক্ত ঘাতক কায়সারের ভগ্নিপতি মোহাম্মদ পারভেজকে আটক করে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কর্ণফুলী থানার অফিসার ইনচার্জ ইসমাইল হোসেন বলেন, সালিশি বৈঠকে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আরিফুলকে ছুরিকাঘাত করা হয়। স্থানীয়রা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় পারভেজ নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj