দুস্থদের পাশে মাশরাফি

শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : ক্রিকেটার হিসেবে ভূমিকা রাখার পর এবার সংসদ সদস্য হিসেবে নিজ এলাকায় দুস্থ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন নড়াইল-২ আসনের সাংসদ মাশরাফি বিন মুর্তজা। এই খারাপ সময়ে একের পর এক সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন তিনি। গত কয়েক দিন ধরে করোনা নিয়ে সবাইকে সতর্ক করার পাশাপাশি নিজ এলাকার মানুষদের নানাভাবে সাহায্য করছেন নড়াইল এক্সপ্রেস।

নিজের জায়গা থেকে চেষ্টা করছেন সাধ্যমতো করতে। মাশরাফির উদ্বেগটা এখন মানুষের সচেতনতা নিয়ে। করোনা নিয়ে এত বার্তা, এত প্রচারের পরও এখনো অনেকে সচেতন হচ্ছেন না, বুঝতে পারছেন না করোনার ভয়াবহতা। এটিই ভাবাচ্ছে মাশরাফিকে, ‘ইতালি, স্পেন এত উন্নত দেশ, যাদের স্বাস্থ্যসেবা সব সময়ই সেরা তিনে থেকেছে, তারা কী হিমশিমটা খাচ্ছে করোনা ঠেকাতে! আমাদের বুঝতে হবে এর ভয়াবহতার বিষয়টা। সরকার ছুটি ঘোষণা দিল ঘরে থাকতে। অমনি আমরা পড়িমরি করে দল বেঁধে ছুটলাম গ্রামের বাড়িতে। করোনা ঝুঁকিতে পড়ে গেল হাজার হাজার মানুষ। আমাদের মতো দেশে করোনা প্রতিরোধে সচেতনতাই হচ্ছে মূল ব্যাপার।’

অন্য সবার মতো ঘরবন্দি মাশরাফি বিন মুর্তজাও। ঘরে থাকলেও সরব আছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সবাইকে আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘরে থাকার অনুরোধ করেছেন। জানিয়েছেন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে যাওয়ার আহ্বান। কিন্তু ঘরে আর কত? তার নড়াইল-২ আসনের অনেক মানুষ এখন কর্মহীন। জীবিকা নির্বাহ করাই যেন তাদের জন্য কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই করোনা সংকটে সাবেক এ টাইগার দলপতি নেমেছেন সম্মুখ যুদ্ধে। করোনা ভাইরাসের প্রকোপে বন্ধ হয়ে গেছে সাধারণ মানুষের রুটি-রুজির পথ। রিকশাওয়ালা, দিনমজুর, হকারদের মতো নিম্ন আয়ের মানুষদের কষ্টে দিন কাটছে। তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে নড়াইল সদর ও লোহাগড়া উপজেলার নিম্ন আয়ের ৩০০ পরিবারকে ব্যক্তিগত ফান্ড থেকে খাদ্য সহায়তা দিতে যাচ্ছেন সংসদ সদস্য মাশরাফি।

এমনটাই জানান মাশরাফির ব্যক্তিগত সহকারী জামিল আহমেদ সানি। এ বিষয়ে মাশরাফির সহকারী বলেন, ‘আগামী দু’একদিনের মধ্যেই আমরা স্থানীয় নিম্নবিত্তদের সহায়তার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। প্রাথমিকভাবে ৩০০ জনকে সাহায্য করা হবে। তালিকা তৈরির কাজও শেষ। বাড়ি বাড়ি গিয়ে দ্রব্য-সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হবে। যেখানে প্রত্যেক পরিবারের জন্য থাকছে পাঁচ কেজি চাল, এক কেজি তেল, ডাল, আলু, লবণ এবং সাবান।’ শুধু সংসদ সদস্য হিসেবেই নয়। ক্রিকেটার মাশরাফিও এগিয়ে এসেছেন মানবতার ডাকে সাড়া দিয়ে। জাতীয় দলের ২৭ জন ক্রিকেটার মিলে করোনা যুদ্ধের জন্য গড়েছেন ৩০ লাখ টাকার তহবিল। সেখানেও মাশরাফি দিয়েছেন ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা।

করোনার বিরুদ্ধে যারা সরাসরি লড়াই করে যাচ্ছেন সেই চিকিৎসক ও নার্সদের কথাও ভুলে যাননি মাশরাফি। তাদের সুরক্ষিত রাখতে এরই মধ্যে নিজস্ব তহবিল থেকে প্রাথমিক পর্যায়ে চিকিৎসক, নার্সদের জন্য ২০০ সুরক্ষার পোশাক পার্সোনাল প্রটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) জোগাড় করেছেন। আরো ৩০০ পিপিই ব্যবস্থা করার পরিকল্পনা রয়েছে মাশরাফির।

বিশ^জুড়ে মহামারি আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। মৃতের সংখ্যা ২৪ হাজার ছাড়িয়েছে। বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত ৪৮ জনের দেহে করোনার উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। আর মারা গেছেন ৫ জন। সারা বিশে^ এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৩২ হাজার ২৬২ আর মৃতের সংখ্যা ২৪ হাজার ৯০।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj