পুঁজিবাজারে পতন অব্যাহত

শুক্রবার, ৬ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : বুধবারের মতো গতকাল বৃহস্পতিবারও পতনে শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারের লেনদেন। গতকার উভয় পুঁজিবাজারের সব সূচক কমেছে। একই সঙ্গে কমেছে টাকার পরিমাণে লেনদেন এবং বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই ও সিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গতকাল প্রধান পুঁজিবাজার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৩৮৪ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৮, ডিএসই-৩০ সূচক ৮ এবং সিডিএসইটি সূচক ৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১০১৬, ১৪৬২ ও ৮৬৪ পয়েন্টে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৪১৫ কোটি ১৩ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট। যা আগের দিন থেকে ৯৫ কোটি ৫৩ লাখ টাকা কম। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫১০ কোটি ৬৬ লাখ টাকার।

ডিএসইতে গতকাল ৩৫৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১০৫টির বা ৩০ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ২১৩টির বা ৬০ শতাংশের এবং ৩৭টি বা ১০ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ১৩ কোটি ৮৬ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে লাফার্জহোলসিমের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৮ কোটি ৪০ লাখ টাকার ওরিয়ন ফার্মার এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৭ কোটি ৯৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে নাহি অ্যালুমিনিয়ামের।

এছাড়া ডিএসইতে টপটেন লেনদেন থাকা অপর কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে- বিকন ফার্মা, সিভিও পেট্রোকেমিক্যাল, ওরিয়ন ইনফিউশন, ব্র্যাক ব্যাংক, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, হাক্কানি পাল্প এবং সিনোবাংলা।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৮৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৪০৪ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৪৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৬০টির, কমেছে ১৬২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টির দর। গতকাল সিএসইতে ১৬ কোটি ১৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

ব্লুক মার্কেটে লেনদেন ৬ কোটি টাকার : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লুক মার্কেটে গতকাল ৯টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির ৬ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, কোম্পানিগুলোর ২৮ লাখ ২৮ হাজার ৮৫৭টি শেয়ার ১৫ বার হাত বদল হয়েছে। এর মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর ৬ কোটি ১৯ লাখ ৪ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ১ কোটি ৬৬ লাখ ৬০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে উত্তরা ব্যাংকের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ কোটি ৪৭ লাখ ৩৮ হাজার টাকার ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোর এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৯৯ লাখ ৪৫ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে সায়হাম কটনের।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj