শিকলবন্দি জামাই-বাবা

শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

কচুয়া (চাঁদপুর) প্রতিনিধি : উপজেলায় শ^শুরবাড়িতে নববধূকে নিতে এসে ৫ দিন ধরে শিকলবন্দি ছিলেন ছেলে শিপন (৩৫) ও তার বাবা মিলন মিয়া। গত বুধবার বিকেলে উপজেলার গোহট উত্তর ইউনিয়নের খিলা গ্রামের পাটোয়ারি বাড়ির একটি ঘর থেকে তাদের উদ্ধার করে পুলিশ। শিপন ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর উপজেলার রামসোনা গ্রামের বাসিন্দা। জানা যায়, গত শনিবার রাতে শিপন তার বিবাহিত স্ত্রী হালিমা বেগমকে নিতে শ^শুরবাড়ি কচুয়ার খিলা গ্রামে আসেন। নববধূর পরিবারের লোকজন শিপনের ওপর স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে তার পায়ে শিকল দিয়ে বেঁধে ঘরের একটি কক্ষে তালা দিয়ে আটক করে রাখেন। খবর পেয়ে সোমবার শিপনের বাবা-মা ময়মনসিংহ থেকে এলে হালিমাকে তালাক দেয়ার কথা বলে কাবিননামার একলাখ ১০ হাজার টাকা দাবি করে শিপনের বাবা মিলনকেও আটক করে রাখেন। গত মঙ্গলবার শিপনের মা শিল্পী বেগমকে টাকা নিয়ে আসার জন্য তাদের বাড়ি ময়মনসিংহ পাঠানো হয়। উল্লেখ্য, শিপন ও হালিমার মধ্যে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর দুপক্ষের পারিবারিক সম্মতিতে নারায়ণগঞ্জের বক্তাবলী এলাকায় বাবার ভাড়াটিয়া বাসায় গত ১৯ সেপ্টেম্বর তাদের বিয়ে হয়। কচুয়া থানার ওসি মো. ওয়ালীউল্লাহ অলি জানান, অবশেষে দুই পরিবারের সদস্যদের নিয়ে তা মীমাংসা করা হয়েছে। বর্তমানে শিপন তার শ^শুরবাড়ি কচুয়ার খিলা গ্রামে রয়েছেন। পরে শিকলে বন্দি থেকে মুক্ত শিপন ও তার বাবা মিলন মিয়া।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj