জামিন পেলে চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাবেন খালেদা

বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : চিকিৎসকরা নিয়মিত এলেও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা হচ্ছে না বলে দাবি করেছেন তার বোন সেলিমা ইসলাম। জামিন পেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশ নেয়া হবে বলেও জানান তিনি। গতকাল বুধবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন সেলিমা ইসলাম।

চিকিৎসার বিষয়টি একান্তই খালেদা জিয়ার পারিবারিক সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন দলটির নেতারা। এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ভোরের কাগজকে বলেন, এটা সম্পূর্ণই পারিবারিক সিদ্ধান্ত। এর সঙ্গে দলের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। তবে খালেদা জিয়ার জামিনের জন্য প্রচেষ্টা চলছে। প্যারোলের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আমার কিছুই জানা নেই। সুতরাং নো কমেন্টস।

সেলিমা ইসলামসহ তার পরিবারের কয়েকজন গতকাল বিকেল সোয়া ৩টায় বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়ার কেবিনে যান। প্রায় ঘণ্টাখানেক তারা সেখানে অবস্থান করেন। পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সেলিমা ইসলাম। খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, তার শরীর ভালো না। হাত এবং পায়ের আঙুলগুলো বেঁকে গেছে। সেখানে অসম্ভব ব্যথা অনুভব করছেন। উঠে দাঁড়াতে পারছেন না, সোজা হয়ে বসতে পারছেন না। এই অবস্থায় তার উন্নত চিকিৎসা দরকার। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যদি তার জামিন হয় নিশ্চয়ই তিনি বিদেশে যাবেন। আমরা তো চাচ্ছি তাকে বিদেশে পাঠাতে।

বিএনপির প্রেস উইংয়ের কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার বলেন, সেলিমা রহমান যা বলেছেন ম্যাডামের বোন হিসেবে তার পারিবারিক বক্তব্য। প্যারোলের বিষয়ে দিদার বলেন, প্যারোল চান না, এটা ম্যাডাম আগেই জানিয়ে দিয়েছেন। সুতরাং প্যারোলের প্রশ্নই উঠে না। তবে তার জামিনের জন্য দলের পক্ষ থেকে জোর চেষ্টা চলছে।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj