শেখ রাসেল টেনিস টুর্নামেন্ট : উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

খেলা প্রতিবেদক : আমাদের দেশে টেনিস খেলাটি ক্রিকেট-ফুটবলের মতোই বেশ জনপ্রিয়। তাই দেশের ইতিহাসে খুলনায় গতকাল টেনিস খেলার সবচেয়ে বড় আয়োজন শেখ রাসেল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ টেনিস শুরু হয়েছে। গণভবন থেকে গতকাল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় খুলনা থেকে শেখ রাসেল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ টেনিস টুর্নামেন্টের বিভিন্ন দিক প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন।

এবার শেখ রাসেল টেনিস টুর্নামেন্ট ১৮টি দেশের ২০টি ক্লাবের ৬৪ জন খেলোয়াড় এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করছে।

এর মধ্যে ১০ জন নারী খেলোয়াড়ও রয়েছেন। অংশগ্রহণকারী দেশগুলো হচ্ছে- মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, মঙ্গোলিয়া, কোরিয়া, থাইল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, ক্যামেরুন, ইতালি, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, তিউনেশিয়া, গ্রেট ব্রিটেন, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান, পাকিস্তান, ভুটান, ভারত, ইরাক ও স্বাগতিক বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টের খেলাগুলো খুলনা সার্কিট হাউস শেখ রাসেল ইন্টারন্যাশনাল টেনিস গ্রাউন্ড, অফিসার্স ক্লাব, খুলনা ক্লাব, খুলনা বিশ^বিদ্যালয় ও খুলনা ডিআইজি টেনিস গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টুর্নামেন্টর উদ্বোধন করে ক্রীড়াপ্রেমী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, শিক্ষার পাশাপাশি খেলাধুলা করতে হবে। সব দিকেই এক্সপাট হতে হবে আমাদের সন্তানদের। তরুণদের ভেতরে দেশপ্রেম জাগ্রত হবে। এ জন্য খেলাধুলাকে গুরুত্ব দেই। আমি নিজেই একজন স্পোর্টস পরিবারের মেয়ে। খেলাধুলা চরিত্র গঠনে সহায়তা করবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশকে নিয়ে জাতির পিতা যে স্বপ্ন দেখেছিলেন তা বাস্তবায়ন করতে হবে।

সেজন্য বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। নিজেদের চরিত্র গঠন করতে পারবে। খুলনায় আয়োজিত এ ধরনের টুর্নামেন্টের সাফল্য কামনা করি। অনেকগুলো দেশ এ টুর্নানেন্টে অংশ নেবে। যারা খেলোয়াড় তারা শুধু নিজেকেই উজ্জ্বল করে না। তারা দেশের মুখও উজ্জ্বল করে। আজকের তরুণরা সারা বিশে^ খ্যাতি অর্জন করুক, এটাই আমার কামনা।

এ ছাড়া শেখ রাসেল টেনিস টুর্নামেন্ট খেলোয়াড়দের জন্য সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সব বাহিনীর সমন্বয়ে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj