পানিসম্পদ উপমন্ত্রী : ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে কাজ করছে সরকার

শনিবার, ৯ নভেম্বর ২০১৯

মো. ইব্রাহীম হোসাইন, নড়িয়া (শরীয়তপুর) থেকে : পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেছেন, সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টার ফলে গত বর্ষায় নড়িয়ার মানুষ নদীভাঙনের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন। এ বছর বর্ষায় যে ২২০ মিটার এলাকা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তা আগামী দুই মাসের মধ্যে ভরাট করে তাদের পুনর্বাসন করা হবে। এ ছাড়া সরকার দেশের নদীভাঙন প্রবণ এলাকার পুনর্বাসনে ইতোমধ্যে ১০০ কোটি টাকা অনুমোদন দিয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে নড়িয়ার মুলফৎগঞ্জ বাজারসংলগ্ন নদীর পাড়ে ঢাকার নড়িয়া উপজেলা পেশাজীবী পরিষদের পক্ষ থেকে নদীভাঙন কবলিত দুর্গতদের দিনব্যাপী বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রি আরো বলেন, ২০১৮ সালে ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ ভাঙনে নদীগর্ভে বিলীন হওয়া মুলফৎগঞ্জ হাসপাতালের পুনর্নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। পদ্মা নড়িয়ার মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে আগামী এক বছরের মধ্যে নতুন আরো একটি ১০০ শয্যার হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে। এ ছাড়া আগামী এক বছরের মধ্যে নড়িয়ার উন্নয়নের জন্য শতভাগ বিদ্যুতায়ন, রাস্তাঘাটের উন্নয়নসহ একটি আধুনিক স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) আব্দুল্লাহ হারুন পাশা, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়ন্তী রূপা রায়, ঢাকার নড়িয়া উপজেলা পেশাজীবী পরিষদের আহ্বায়ক নুরে হেলাল, সদস্য সচিব ডা. ফারুক শেখ, সদস্য ডা. তৌহিদ মুন্সী, মোহসীন বেপারি, আতাউর রহমান, পানি উন্নয়ন বোর্ড ফরিদপুর অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী এ কে এম ওয়াহিদ উদ্দিন চৌধুরী, পদ্মার ডানতীর রক্ষাবাঁধ প্রকল্প পরিচালক আব্দুল হেকিম, শরীয়তপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রকাশ কৃষ্ণ সরকার, নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান আলী রাঢ়ী, সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন, নড়িয়া পৌরসভার মেয়র শহিদুল হইসলাম বাবু রাঢ়ী প্রমুখ।

মেডিকেল ক্যাম্পে নড়িয়ার ভাঙনকবলিত দুস্থ সহ¯্রাধিক রোগীকে বিনামূল্যে ওষুধসহ চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়। মেডিকেল ক্যাম্প উদ্বোধনের আগে মন্ত্রী চরআত্রা, নওয়াপাড়া, সুরেশ্বর ও মুলফৎগঞ্জ এলকা এবং পদ্মার ডানতীর রক্ষাবাঁধ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj