মির্জা ফখরুল : চুনোপুঁটি ধরে দুর্নীতি আড়াল করতে চায় সরকার

শনিবার, ৯ নভেম্বর ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার নিজেদের দুর্নীতি এমন পর্যায়ে নিয়ে গেছে যে তাদের চুনোপুঁটিগুলোকে ধরতে হচ্ছে। চুনোপুঁটি ধরে আর ক্যাসিনো গল্প সাজিয়ে সরকার দুর্নীতি আড়াল করতে চায়। কিন্তু এগুলো করে মূল দুর্নীতি আড়াল করতে পারবে না।

৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে রাজধানীতে বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিকেল ৩টায় নেতাকর্মীরা সভাস্থলে পৌঁছলেও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অনুমতি না থাকায় সভাস্থলে তারা প্রবেশ করতে পারেননি। পরে বিকেল ৪টায় অনুমতি পেলে নেতাকর্মীরা নাট্যমঞ্চ মিলনায়তনে প্রবেশ করলে সাড়ে ৪টার দিকে সভা শুরু হয়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সেলিমা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, আহমেদ আজম খান, নিতাই রায় চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবীর খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ এতে বক্তব্য রাখেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাস আলমগীর বলেন, ব্যাংক থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করেছেন, এর হিসাব কোথায়? শেয়ারবাজার থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করে নিয়েছেন, তার হিসাব কোথায়? তার হিসাব থাকবে না এ কারণেই যে, তার কেউ আপনাদের মন্ত্রী, কেউ আপনাদের উপদেষ্টা, আবার কেউ আপনাদের আপনজন।

তিনি বলেন, সরকারে যারা আছেন তারা ৭ নভেম্বরকে স্বীকার করেন না। তারা স্বীকার করবে কেন? তারা তো দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব বিশ^াস করেন না। যারা গণতন্ত্রে বিশ^াস করে, বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বে বিশ^াস করে, বাংলাদেশকে সারা পৃথিবীর বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে দেখতে চায়, তারা অবশ্যই ৭ নভেম্বরকে বিশ^াস করে এবং মনে ধারণ করে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হলে রাস্তায় নামতে হবে, এর কোনো বিকল্প নেই। এ জন্য সব দেশপ্রেমিক শক্তিকে এক জায়গায় আনতে হবে। আমরা সেই লক্ষ্যেই যাচ্ছি। আমরা মনে করি, সব দেশপ্রেমিক ও গণতান্ত্রিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করে একনায়ক ফ্যাসিস্ট সরকারকে সরিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হব।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj