সিরাজদিখানে শারদীয় দুর্গোৎসবকে ঘিরে উৎসবের আমেজ

বৃহস্পতিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

দেবব্রত দাস দেবু, সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) থেকে : সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজাকে ঘিরে মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলার সর্বত্র উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।

উপজেলার বিভিন্ন এলাকার দুর্গা মন্দিরে প্রতিমা তৈরির কাজ এখন শেষ পর্যায়ে। সিরাজদিখান এলাকার সন্তোষপাড়া, ইছাপুরা, সিরাজদিখান বাজার, দানিয়াপাড়া পালপাড়া, মালখানগর এবং চিত্রকোট রাজানগর, বাসাইল, ঘোড়ামারা গ্রামসহ বিভিন্ন মন্দির ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

মন্দিরে মন্দিরে এখন চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ। আগামী ৪ অক্টোবর ষষ্ঠী পূজা, ৫ অক্টোবর দুর্গা সপ্তমী, ৬ অক্টোবর মহাষ্টমী, ৭ অক্টোবর মহানবমী এবং ৮ অক্টোবর বিজয়া দশমী।

শাস্ত্রানুযায়ী এ বছর দেবী দুর্গা ঘোটকে আগমন করবেন এবং ঘোটকে চড়ে গমন করবেন। ইছাপুরা ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদ ও মন্দির কমিটির সহসভাপতি বাবু ভবন দাস জানান, দুর্গাপূজা ঐতিহাসিকভাবে বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব।

এ পূজার প্রধান আবেদন হলো, ‘দুষ্টের দমন শিষ্টের পালন।’ আগামী ৩ অক্টোবর বোধনের মধ্য দিয়ে দুর্গোৎসবের মূল পূজা শুরু হবে।

৮ অক্টোবর বিজয়া দশমীর মধ্য দিয়ে শেষ হবে হিন্দুদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় এ উৎসব।

উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, এবার উপজেলায় ১১৩টি পূজামণ্ডপে দুর্গাপূজার আয়োজন চলছে।

মুন্সীগঞ্জ জেলার সবচেয়ে বেশি পূজা হচ্ছে সিরাজদিখান উপজেলায়।

থানার ওসি মো. ফরিদউদ্দিন জানান, মন্দিরগুলোতে সুষ্ঠু এবং শান্তিপূর্ণভাবে পূজা সম্পন্ন করার লক্ষ্যে পুলিশের পক্ষ থেকে যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে।

এ ছাড়া উপজেলার পূজা উদযাপন পরিষদ নেতারা এবং মন্দির কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকদের সঙ্গে শিগগিরই মতবিনিময়ের আয়োজন করবে পুলিশ।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj