টাঙ্গন নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের মহোউৎসব

বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বোচাগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : বোচাগঞ্জ উপজেলার টাঙ্গন নদীতে সুকদেবপুর মৌজার পারঘাটা ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় সরকারি নির্দেশনা না থাকার পরও একটি প্রভাবশালী মহল দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে ড্রেজার ও বোমা মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করলেও যেন দেখার কেউ নেই। এলাকাবাসী অবিলম্বে পারঘাটা ব্রিজসহ চলাচলের পাকা রাস্তাটির স্বার্থে উক্ত স্থান থেকে বালু উত্তোলন বন্ধের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

জানা গেছে, জেলা প্রশাসন দিনাজপুর ১৩টি শর্তাবলির মাধ্যমে বোচাগঞ্জ উপজেলার কুকুড়াডাঙ্গী, কোদালকাঠী ও সাদামহল মৌজার কয়েকটি অংশ থেকে বালু উত্তোলন করার কার্যাদেশ দেয় ঠিকাদার আলাউদ্দীনকে। কিন্তু ঠিকাদার তার আত্মীয় জনৈক মো. হজরত আলীকে সাব লিজ দিয়ে দেন। বর্তমানে সাব ঠিকাদার হজরত আলী সরকারি সব শর্তাবলি অমান্য করে সুকদেবপুর মৌজার পারঘাটা ব্রিজ সংলগ্ন স্থান থেকে ৩টি ড্রেজার মেশিন ও ১টি বোমা মেশিনের মাধ্যমে বালু উত্তোলন করছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, হযরত আলীর ৪টি দশ চাকার ট্রাকে করে প্রতিদিন অসংখ্যবার বিভিন্ন জায়গায় বালু নিয়ে যায়। এতে সুকদেরপুর পাকা সড়কটিসহ নদীর সংলগ্ন মাটির রাস্তাটিও চরম ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এই এলাকার কৃষকরা। এ ছাড়া অবৈধভাবে বোমা মেশিন ও ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করার ফলে নদীর ভূগর্ভস্থ দেবে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। জেলা প্রশাসকের কার্যাদেশে ৩টি মৌজার কথা উল্লেখ করা থাকলেও সেসব মৌজা থেকে বালু উত্তোলন না করে শুধু সুকদেবপুর মৌজার পারঘাটা থেকে বালু উত্তোলন করছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ফকরুল হাসান জানান, কোনো অনিয়ম পাওয়া গেলে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দেয়া হবে।

সারাদেশ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj