সঙ্গীতশিল্পী খালিদ হোসেন হাসপাতালে

বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : বিশিষ্ট নজরুল সঙ্গীতশিল্পী, গবেষক খালিদ হোসেন গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ১০ দিন আগে থেকে তিনি জাতীয় হৃদ?রোগ ইনস্টিটিউটের সিসিইউতে চিকিৎসা নিচ্ছেন। খালিদ হোসেনের একজন ছাত্রের সূত্রে এ তথ্য জানা যায়, শিল্পী খালিদ হোসেন অনেক দিন ধরেই বার্ধক্যজনিত নানা অসুখে ভুগছেন। পাশাপাশি ফুসফুস ও হৃদ?যন্ত্রের জটিলতায় ভুগছেন।

এর আগে গত বছরের শুরুর দিকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন খালিদ হোসেন। তখন থেকে প্রতি মাসে তাকে একটি করে বিশেষ ইনজেকশন দিতে হয়। এ কারণে ভর্তি হতে হয় হাসপাতালে। ইনজেকশন দেয়ার দুদিন পরই তিনি বাসায় ফিরে যান। কিন্তু ইনজেকশন দেয়ার পর তার শারীরিক অবস্থার হঠাৎ অবনতি ঘটায় তাকে সিসিইউতে রাখা হয়েছে। খালিদ হোসেনের চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত বছর ১০ লাখ টাকার অনুদান দিয়েছিলেন।

খালিদ হোসেনের জন্ম ১৯৩৫ সালের ৪ ডিসেম্বর ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কৃষ্ণনগরে। দেশ বিভাগের পর বাবা-মায়ের সঙ্গে তিনি চলে আসেন কুষ্টিয়ার কোর্টপাড়ায়। ১৯৬৪ সাল থেকে স্থায়ীভাবে ঢাকায় আছেন। পাঁচ দশক ধরে বাংলাদেশে নজরুল সঙ্গীতের শিক্ষক, গবেষক ও শুদ্ধ স্বরলিপি প্রণয়নে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। তার ৬টি নজরুল সঙ্গীতের অ্যালবাম প্রকাশ হয়েছে। একটি আধুনিক গানের অ্যালবাম ও ১২টি ইসলামি গানের অ্যালবামও রয়েছে।

জাতীয় বিশ^বিদ্যালয়, ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল বিশ^বিদ্যালয় ও দেশের সব মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড এবং বাংলাদেশ টেক্সট বুক বোর্ডে সঙ্গীত নিয়ে প্রশিক্ষক ও নিরীক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন খালিদ হোসেন। এ ছাড়া নজরুল ইনস্টিটিউটে নজরুল সঙ্গীতের আদি সুরভিত্তিক নজরুল স্বরলিপি প্রমাণীকরণ পরিষদের সদস্য তিনি।

খালিদ হোসেন একুশে পদক পেয়েছেন ২০০০ সালে। এ ছাড়া পেয়েছেন নজরুল একাডেমি পদক, শিল্পকলা একাডেমি পদক, কলকাতা থেকে চুরুলিয়া পদকসহ অসংখ্য সম্মাননা।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj