ডাকসুর পুনর্নির্বাচনের দাবিতে ভুখা মিছিল

শনিবার, ১৬ মার্চ ২০১৯

ঢাবি প্রতিনিধি : ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) পুনর্নির্বাচনের দাবিতে ভুখা মিছিল করেছে অনশনকারী শিক্ষার্থীরা। গতকাল শুক্রবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে রাজু ভাস্কর্যের সামনে থেকে অনশনরত ছয় শিক্ষার্থী ভুখা মিছিল শুরু করেন। এ সময় ঢাবির বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরাও মিছিলে যোগ দেন। ভুখা মিছিলে শিক্ষার্থীদের হাতে ছিল- ‘সন্তান যখন মেডিকেলে ভিসি কেন বাসায়!’, ‘এই নির্বাচন যদি বাতিল না করো তবে এই নেতাদেরই ডিজার্ভ করো’ ইত্যাদি লেখাসংবলিত প্ল্যাকার্ড। মিছিলটি ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

শিক্ষার্থীরা পুনঃতফসিল ঘোষণার পাশাপাশি নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ মেনে কর্তৃপক্ষের পদত্যাগ দাবি করেন। ভুখা মিছিলের পর তিন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ নিয়ে পাঁচ অনশনকারী শিক্ষার্থী অসুস্থ হলেন। নতুন করে অসুস্থ হওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন- শোয়েব মাহমুদ, সিইসির মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মিম আরাফাত মানব ও ভূ-তত্ত্ব বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আল মাহমুদ।

এর আগে অনশনকারী শিক্ষার্থী অনিন্দ্য মণ্ডল অসুস্থ হয়ে পড়েন। অনিন্দ্য চিকিৎসা নিয়ে আবাসিক হলে ফিরে আসেন। সকালে অসুস্থ হয়ে পড়েন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী রবিউল ইসলাম।

ক্যাম্পাসের অন্য শিক্ষার্থীরা জানান, বিকেলে রাজু ভাস্কর্যের সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়। মিছিলটি ভিসি ভবনের সামনে এলে অনশনকারী শোয়েব মাহমুদ অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে অনশনকারী শিক্ষার্থী মীম আরাফাত মানব ও আল মাহমুদ তাহাও অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ সময় তাদের সহপাঠীরা শিক্ষার্থীদের রিকশাযোগে হাসপাতালে নিয়ে যান।

এর আগে গত বুধবার অসুস্থ হয়ে পড়েন অনশনকারী শিক্ষার্থী অনিন্দ্য মণ্ডল। গতকাল সকালে অসুস্থ হয়ে পড়েন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী রবিউল ইসলাম। তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালের বিছানায় শুয়েও তিনি ডাকসুতে পুনর্র্নির্বাচনের দাবিতে অনড় রয়েছেন। অনশনরত শিক্ষার্থী শোয়েব মাহমদু বলেন, আমরা এই তথাকথিত নির্বাচন মানি না। সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। আমাদের দাবি দুটি। প্রথমত, ডাকসুর পুনর্র্নির্বাচন দিতে হবে। দ্বিতীয়ত, নির্বাচনের সঙ্গে জড়িত কর্তৃপক্ষকে এই প্রহসনের নির্বাচনের জন্য প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়ে পদত্যাগ করতে হবে।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj