ভারতে প্রিয়াঙ্কা ঝলক শুরু উত্তর প্রদেশ থেকে

মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : উত্তর প্রদেশের রাজধানী লখনৌতে প্রায় ৩০ কিলোমিটার রোড শোর মধ্য দিয়ে গতকাল সোমবার থেকে নির্বাচনী জনসংযোগ শুরু করেছেন কংগ্রেস নেত্রী ইন্দিরা গান্ধীর উত্তরসূরি প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভদ্রা। এর মধ্য দিয়েই ভারতবর্ষের উত্তাল রাজনীতির মাঠে দলীয় দায়িত্ব পালনের কাজ শুরু হলো তার। রোড শোতে ৪৭ বছর বয়সী প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে ছিলেন তার ভাই ও কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও। পাশাপাশি, ওই একই দিনে জনগণের সঙ্গে আরো প্রত্যক্ষ যোগাযোগ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সামাজিক যোগাযোগ নেটওয়ার্ক টুইটারেও নিজের নামে একটি অ্যাকাউন্ট খোলেন তিনি। খবর এনডিটিভি, আনন্দবাজার।

টুইটারে কয়েক মিনিটের মধ্যেই কয়েক হাজারেরও বেশি ফলোয়ার পেয়ে যান প্রিয়াঙ্কা। লোকসভা নির্বাচনের আগে টুইটারকেও প্রচারের হাতিয়ার করতে চলেছেন প্রিয়াঙ্কা, বলছে রাজনৈতিক মহল। এর আগে অডিও বার্তার মাধ্যমে মানুষের মন বুঝে নেয়ার কথা বলেছিলেন প্রিয়াঙ্কা। গতকাল সোমবার সকাল ১১টা ৪৯ মিনিটে এই মাইক্রোব্লুগিং সাইটে প্রিয়াঙ্কার যোগদানের কথা জানানো হয় কংগ্রেসের পক্ষ থেকে। মাত্র ১৫ মিনিটেই প্রিয়াঙ্কার ফলোয়ার ৪০ হাজার ছাড়িয়ে যায়।

গতকাল সোমবার দুপুর ১টার দিকে কংগ্রেস নেতৃবৃন্দের সঙ্গে লখনৌ আসেন প্রিয়াঙ্কা। বিমানবন্দর থেকেই বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা সহকারে তাকে কংগ্রেসের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। বিশেষ একটি বাসের ছাদে সওয়ার হয়ে রোড শো শুরু করেন তিনি। এ সময় মুহুর্মুহু ¯েøাগান, শঙ্খধ্বনি আর পুষ্পবৃষ্টির মধ্যে তাকে বরণ করে নেয় হাজার হাজার সমর্থক। কর্মীদের উদ্দেশে হাত নাড়াতে শুরু করেন প্রিয়াঙ্কা। রবিবার রাত থেকে রোড শোর পুরো পথটাই ছেয়ে যায় প্রিয়াঙ্কার প্রতিকৃতি সংবলিত ব্যানার আর পোস্টারে। রাস্তার দুপাশে কাতারে কাতারে মানুষের সমাগত ঘটে প্রিয়াঙ্কাকে এক নজর দেখার জন্য। জাতীয় রাজনীতিতে প্রিয়াঙ্কার আগমন বার্তায় উত্তর প্রদেশের মানুষের মনে এক নতুন প্রাণ সঞ্চার হয়েছে বলে দাবি করছে কংগ্রেস। লোকসভা নির্বাচনের আগে যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে রাস্তায় নেমে দাপট দেখানোর মতো এই প্রাণশক্তিটাই দেখতে চাইছিল কংগ্রেস শিবির।

উত্তর প্রদেশের পূর্বাঞ্চলে দলের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড দেখভাল করবেন প্রিয়াঙ্কা। সক্রিয় রাজনীতি শুরুর আগে গত রবিবার পরিবর্তনের বার্তা দিয়ে সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমি প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। সবার জন্য নতুন এক পরিবর্তনের বার্তা নিয়ে আসছি। আমি চাই রাজনীতির পরিসর এমন হোক যেখানে সবাই নিজেকে তার অংশ হিসেবে ভাবতে পারে। লোকসভার ৮০টি আসন রয়েছে উত্তর প্রদেশে। এর মধ্যে ৪০টি আসন পড়ছে তার দায়িত্বের আওতায়।

মোদির অরুণাচল সফরে চীনের ক্ষোভ : আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির পক্ষে হিন্দুত্ববাদী সমর্থন নিশ্চিত করতে গত শুক্রবার অরুণাচল যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ ঘটনায় ক্ষোভ জানিয়ে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কেও বিষয়টি বিবেচনায় রেখে ভারতের উচিত চীনের স্বার্থের দিকেও খেয়াল রাখা। এর পাল্টা জবাবে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বিবৃতিতে তারা জানায়, অরুণাচল প্রদেশ ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। ভারতীয় নেতারা দেশের অন্যান্য অংশের মতো এখানেও সফর করবেন। এটাই ভারতের স্থায়ী অবস্থান।

দ্বিতীয় সংস্করন'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj