পোল্ট্রি মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলেন ১৯ সাংবাদিক

মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : ‘পোল্ট্রি মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড-২০১৮’ পেলেন দৈনিক ভোরের কাগজের স্টাফ রিপোর্টার মরিয়ম সেঁজুতিসহ ১৯ জন সাংবাদিক। প্রতিবছরের মতো ৫টি নিয়মিত ক্যাটাগরিতে মোট ৯ জন এবং এ বছর একটি ক্যাটাগরি বাড়িয়ে ১০ জন সাংবাদিককে ‘রাইজিং পোল্ট্রি রিপোর্টার্স’ পুরস্কার দেয়া হয়। গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের ‘তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া’ হলে বাংলাদেশ পোল্ট্রি ইন্ডাস্ট্রিজ সেন্ট্রাল কাউন্সিলের (বিপিআইসিসি) উদ্যাগে তৃতীয়বারের মতো পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বিপিআইসিসির সভাপতি মসিউর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. হীরেশ রঞ্জন ভৌমিক। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রথমআলোর সহযোগী সম্পাদক আবদুল কাইয়ুম, একুশে টেলিভিশনের এডিটর ইন-চিফ মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, যমুনা টেলিভিশনের বিজেনেস এডিটর সাজ্জাদ আলম খান তপু, ফিড ইন্ডাস্ট্রিজ এসোসিয়েশনের (ফিআব) সভাপতি এহতেশাম বি. শাহজাহান, ওয়ার্ল্ডস পোল্ট্রি সায়েন্স এসোসিয়েশন বাংলাদেশ শাখার (ওয়াপসা-বিবি) সভাপতি শামসুল আরেফিন খালেদ প্রমুখ। পুরস্কার প্রাপ্তদের মধ্যে সংবাদপত্র ক্যাটাগরিতে প্রথম পুরস্কার পান দৈনিক জনকণ্ঠের স্টাফ রিপোর্টার রহিম শেখ। দ্বিতীয় হলেন ভোরের কাগজের স্টাফ রিপোর্টার মরিয়ম সেঁজুতি এবং তৃতীয় হন দি নিউজ টুডে’র স্টাফ রিপোর্টার মো. মাজহারুল ইসলাম (মিচেল)।

‘ঢাকার বাইরে থেকে প্রকাশিত সংবাদপত্রের প্রতিবেদন’ ক্যাটাগরিতে একমাত্র পুরস্কার পান রাজশাহী থেকে প্রকাশিত দৈনিক নতুন প্রভাতের বার্তা সম্পাদক সোহেল মাহবুব।

‘টিভি ও রেডিও’ ক্যাটাগরিতে প্রথম পুরস্কার লাভ করেন যমুনা টেলিভিশনের স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট সুশান্ত সিনহা। দ্বিতীয় হলেন এনটিভির সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট মোহাম্মদ মাকসুদুল হাসান এবং তৃতীয় চ্যানেল-২৪ এর কৃষিবিষয়ক প্রতিবেদক ফয়জুল সিদ্দিকী। বার্তা-সংস্থা বা অন-লাইন ক্যাটাগরিতে একমাত্র পুরস্কার পান জাগোনিউজ২৪.কম এর স্টাফ রিপোর্টার মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন। এ ছাড়া ‘পোল্ট্রি ও কৃষিবিষয়ক ম্যাগাজিন, অনলাইন’ ক্যাটাগরিতে একমাত্র পুরস্কার লাভ করেন এগ্রিনিউজ২৪.কম-এর সম্পাদক মো. খোরশেদ আলম (জুয়েল)।

এ ছাড়াও ‘রাইজিং পোল্ট্রি রিপোর্টার্স’ পুরস্কার অর্জন করেন- টেলিভিশন চ্যানেলের ৫ জন ও জাতীয় দৈনিকের ৫ জন রিপোর্টার। তারা হলেন- চ্যানেল আইয়ের রংপুর প্রতিনিধি মেরিনা লাভলী, একাত্তর টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার মো. মেহেদী হাসান (ডলার), ডিবিসি নিউজের স্টাফ রিপোর্টার ইব্রাহিম পাঠান, মোহনা টিভির স্টাফ রিপোর্টার তানজিলা নিঝুম, মাই টিভির সিনিয়র রিপোর্টার সি এম আমিনুল মজলিশ, দৈনিক কালের কণ্ঠের স্টাফ রিপোর্টার মো. শওকত আলী।

আরো আছেন দৈনিক যুগান্তরের সিনিয়র রিপোর্টার হামিদুর রহমান ভূঁইয়া (শিপন হাবীব), দৈনিক সমকালের স্টাফ রিপোর্টার শামসুল হক মোহাম্মদ মিরাজ (মিরাজ শামস), দৈনিক নয়াদিগন্তের সিনিয়র রিপোর্টার জিয়াউল হক মিজান এবং দি ইনডিপেন্ডেন্টের বিজনেস রিপোর্টার শরীফ আহমেদ।

প্রথম পুরস্কার বিজয়ীকে প্রাইজমানি হিসেবে ৫০ হাজার টাকা, দ্বিতীয় বিজয়ীকে ৪০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় পুরস্কার বিজয়ীকে ৩০ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হয়। তা ছাড়া ঢাকার বাইরের দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদ, সংবাদ সংস্থা, অনলাইন এবং পোল্ট্রি ও কৃষি ম্যাগাজিন, অনলাইনের পুরস্কার বিজয়ীদের প্রত্যেককে ৩০ হাজার টাকার প্রাইজমানি এবং প্রত্যেক বিজয়ীকে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। ‘রাইজিং পোল্ট্রি রিপোর্টার্স’ পুরস্কার বিজয়ীদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকার প্রাইজমানি এবং সনদ দেয়া হয়।

পুরস্কার বিতরণ শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. হীরেশ রঞ্জন ভৌমিক বলেন, ১৯৮০ সালের পর পোল্ট্রির যাত্রা শুরু হয়। বর্তমানে এটি একটি শিল্পে রূপ নিয়েছে। কিন্তু কিছু কুচক্রি মহল বিভিন্ন অপপ্রচার চালিয়ে এই শিল্পের ক্ষতি করার চেষ্টা করছে। সেদিকে সবাইকে খেয়াল রাখতে হবে। সেই সঙ্গে এই শিল্পে কোনো অসঙ্গতী দেখা দিলে সাংবাদিকরা সেগুলো তুলে ধরবেন। যাতে অসঙ্গতীগুলো থেকে পরিত্রাণের জন্য যথার্থ ব্যবস্থা নেয়া যায়।

বিপিআইসিসির সভাপতি মসিউর রহমান জানান, পোল্ট্রি শিল্প অনেকটা নীরবেই বিপ্লব ঘটিয়েছে। এই শিল্পকে আরো ওপরে নেয়ার জন্য একটি পোল্ট্রি বোর্ড গঠনের আহ্বান জানান তিনি।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj